Breaking News

পুলিশের না’তে থামলোনা সিলেটে ইজতেমা

সিলেটে বিএনপির সমাবেশের আগে ‘আঞ্জুমানে হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশ’ কর্তৃক ঘোষিত ইজতেমায় আপত্তি জানিয়েছিলো এসএমপি পুলিশ। ইজতেমা কয়েকদিন পিছিয়ে নেওয়ার অনুরোধও করা হয়েছিলো। তবে আপত্তি আর অনুরোধ উপেক্ষা করে একদিন আগে থেকেই সিলেটে শুরু হয়ে গেছে ইজতেমার কার্যক্রম। কাল বৃহস্পতি ও শুক্রবার এই ইজতেমা অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা থাকলেও পুলিশ আপত্তি জানানোর পর অজ বুধবার থেকেই শুরু হয় ইজতেমার কার্যক্রম। সিলেটের দক্ষিণ সুরমার কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনাল মাঠে বুধবার সকাল থেকেই জড়ো হন আয়োজকদের অনেকে। এই মাঠেই ফজর ও জোহরের নামাজ আদায় করেন তারা। যদিও মঙ্গলবার রাতে মহানগর পুলিশের পক্ষ থেকে ইজতেমার আয়োজন কয়েকদিন পিছিয়ে নেওয়ার অনুরোধ করা হয়েছিলো। বিএনপির সমাবেশের সময়ে ইজতেমা আয়োজনে অপ্রীতিকর ঘটনার শঙ্কা থেকে এমন অনুরোধ করা হয় বলে জানিয়েছিলেন মহানগর পুলিশের গণমাধ্যম শাখার অতিরিক্ত উপ কমিশনার সুদীপ দাস।

১৯ নভেম্বর নগরের আলীয়া মাদ্রাসা মাঠে বিএনপির সিলেট বিভাগীয় গণসমাবেশ অনুষ্ঠিত হবে। এই সমাবেশের সময়ে ইজতেমা আয়োজনে আপত্তি পুলিশের। তবে পুলিশের এমন আপত্তি আর অনুরোধে ক্ষুব্ধ হয়ে উঠেন আয়োজকরা। পুলিশের নির্দেশনা পাওয়ার পর মঙ্গলবার রাতেই তাদের অনেকে ইজতেমাস্থলে সমবেত হন। আয়োজক সংগঠন আঞ্জুমানে হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের আমির বরুণার পীর হিসেবে পরিচিত সর্বজন সম্মানীত মুফতি মাওলানা রশীদুর রহমান ফারুকও রাতে ইজতেমা মাঠে আসেন। পুলিশের আপত্তির কারণে আজ থেকেই ইজতেমা শুরুর ঘোষণা দেন তিনি।এ প্রসঙ্গে বুধবার সিরেট মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার নিশারুল আরিফ বলেন, ইজতেমাকে ঘিরে অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটতে পারে গোয়েন্দা রিপোর্টে এমনটি আশঙ্কা করা হয়েছিলো। তাই আমরা অনুরোধ করেছিলাম বিএনপি’র গণসমাবেশের পর ইজতেমা আয়োজন করার। কিন্তু উদ্যোক্তারা রাজী হননি এতে । ধর্মীয় বিষয় হওয়ায় আমরা তাদের মানাও করতে পারছি না। তবে শৃংখলার ব্যাপারে সবাইকে সতর্ক থাকার কথা বলেছি আমরা।জানা গেছে, আঞ্জুমানে হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের ৭৭ বছর পূর্তি ১৭ ও ১৮ নভেম্বর দুদিনব্যাপী এই ইজতেমার আয়োজন করা হয়। বৃহস্পতিবার ফজর থেকে ইজতেমার কার্যক্রম শুরু হওয়ার কথা। তবে বুধবার থেকেই তা শুরু হয়ে গেছে।

আয়োজক সংগঠনের আমির মুফতি রশীদুর রহমান ফারুক বলেন, আমরা সব আয়োজন সম্পন্ন করে ফেলেছি। আলেম উলামারাও আসতে শুরু করেছেন। এ অবস্থায় ইজতেমা পেছানা সম্ভব নয়। তবে আমরা আইন মান্য করি। এখানে কেউ বিশ্খৃলা করবে না।উল্লেখ্য, গত ১২ নভেম্বর সিলেট জেলা প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে ‘আঞ্জুমানে হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশ’র পক্ষ বলা হয়- ধর্মীয় ও অরাজনৈতিক এ সংগঠনের ৭৭ বছর পূর্তি উপলক্ষে সিলেটে দুই দিনব্যাপী ইজতেমার আয়োজন করা হচ্ছে। দক্ষিণ সুরমার পারাইরচকস্থ সিলেট কেন্দ্রীয় ট্রাক টার্মিনালে ১৭ নভেম্বর (বৃহস্পতিবার) ফজরের নামাজের পরপরই শুরু হয়ে ইজতেমাটি শেষ হবে পরদিন (১৮ নভেম্বর) বাদ জুম্মা ।

Check Also

রোজ খেলা দেখি : প্রধানমন্ত্রী

প্রতিযোগিতার মধ্যদিয়ে বাংলাদেশ একদিন বিশ্বে খেলাধুলায় আরও অবস্থান তৈরি করবো জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, …

Leave a Reply

Your email address will not be published.