Home | অপরাধ | পরকীয়ায় ধরা খেয়ে গুলি করলেন ইউপি চেয়ারম্যান

পরকীয়ায় ধরা খেয়ে গুলি করলেন ইউপি চেয়ারম্যান

নোয়াখালীর বেগমগঞ্জে এক প্রবাসীর স্ত্রীর সঙ্গে পরকীয়া করতে গিয়ে এলাবাসীর হাতে পড়েছেন সাবেক এক ইউপি চেয়ারম্যান। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে তিনি এলোপাথাড়ি গুলি চালালে দুইজন গুলিবিদ্ধ হন।
সোমবার দিবাগত রাত সাড়ে ১২টার দিকে উপজেলার কুতুবপুর ইউনিয়নের দারোগাপুকুর পাড় এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। অভিযুক্ত কামাল হোসেন ওই ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান ছিলেন।

জানা গেছে, কামাল হোসেনের সঙ্গে ওই এলাকার এক প্রবাসীর স্ত্রীর সঙ্গে দীর্ঘদিন থেকে কামালের পরকীয়ার সম্পর্ক চলছিল।
সোমবার দিবাগত রাত সাড়ে ১২টার দিকে চুপিসারে কামাল ওই গৃহবধুর ঘরে প্রবেশ করলে স্থানীয়রা টের পেয়ে ঘরের বাইরে তালা লাগিয়ে দেয়। খবরটি দ্রুত এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে শত শত মানুষ সেই বাড়িতে জড়ো হয়। খবর দেয়া হয় পুলিশকেও।

এতে ক্ষিপ্ত হয়ে কামাল ঘরের ভেতর থেকে এলোপাথাড়ি গুলি করলে বাইরে থাকা প্রতিবেশী আবুল কালাম ও মিজান গুলিবিদ্ধ হন। তাদের নোয়াখালীর একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে তালা ভেঙে কামালকে আটক করে। এসময় উত্তেজিত জনতা তাকে গণপিটুনি দেয়ার চেষ্টা করে। বর্তমানে তাকে বেগমগঞ্জ মডেল থানায় আটক রাখা হয়েছে।

তবে যে অস্ত্র দিয়ে কামাল গুলি চালিয়েছে পুলিশ তা উদ্ধার করতে পারেনি।

এদিকে গুলিবিদ্ধ আবুল কালামের অবস্থা আশংকাজনক বলে জানা গেছে। তার বুকের ডান পাশে গুলি লেগেছে। চিকিৎসকরা তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার করেছেন।

বেগমগঞ্জ মডেল থানার এসআই মধুসুদন বলেন, আমরা টহল ডিউটিতে ছিলাম। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে উত্তেজিত জনতার হাত থেকে তাকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসি। তবে ওই বাড়ির এক প্রবাসীর স্ত্রীর সঙ্গে তার সম্পর্কের কথা স্থানীরা আমাদের জানিয়েছে।

বেগমগঞ্জ মডেল থানার ওসি সাজিদুর রহমানের বলেন, কামালকে উদ্ধার করে থানায় আনা হয়েছে। তিনি বর্তমানে পুলিশের হেফাজতে রয়েছেন। এ ঘটনায় থানায় মামলা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। মামলা হলেই তাকে আদালতে পাঠানো হবে।

About admin

Check Also

শরীয়তপুরে আওয়ামী লীগ নেতার বিরুদ্ধে নারী ইউপি সচিবকে লাঞ্ছনার অভিযোগ

আওয়ামী লীগ নেতার বিরুদ্ধে শরীয়তপুরে ইউনিয়ন পরিষদের নারী সচিবকে লাঞ্ছিত করার অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় …