Home | অপরাধ | আপনি চিনেন না, আমি আইজিপির গাড়িচালক, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর পিএসের আত্মীয়!

আপনি চিনেন না, আমি আইজিপির গাড়িচালক, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর পিএসের আত্মীয়!

সিরাজগঞ্জের সলঙ্গা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুর রফিককে শাসালেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপারের গাড়িচালক কনস্টেবল আলমগীর হোসেন। সোমবার বিকেলে সলঙ্গা থানা ভবনের সামনে এ ঘটনা ঘটে। এ সময় ঘটনাস্থলে উপস্থিত কয়েকজন সংবাদকর্মী ও পুলিশ কর্মকর্তাদের সামনে কনস্টেবল আলমগীর হোসেন আলম ওসিকে হুমকি দিয়ে বলেন, স্যার আমাকে আপনি চিনেন না। আমি আইজির গাড়ি চালিয়েছি। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর পিএস আমার আত্মীয়। আপনাদের সবাইকে দেখে নেওয়ার ক্ষমতা আমার আছে।

প্র সলঙ্গা ইউপি চেয়ারম্যান মতিউর রহমান মতি জানান, সোমবার বিকেলে সলঙ্গা থানা পরিদর্শনে এসেছেলিনে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আব্দুর রউফ। তার গাড়ি থানা ভবনে ঢোকার সময় সবুজ নামের এক কনস্টেবল সেটা লক্ষ করেননি। অতিরিক্ত পুলিশ সুপারকে সম্মান প্রদর্শন না করায় গাড়ি থেকে নেমেই চালক আলমগীর কনস্টেবল সবুজের উপর চড়াও হন। বিষয়টি ওসি আব্দুর রফিকের চোখে পড়লে তিনি এর প্রতিবাদ করে বলেন, তুমি কনস্টেবল হয়ে অপর কনস্টেবলের উপর চড়াও হতে পারো না। এখানে সিনিয়র কর্মকর্তা রয়েছেন তিনি বিষয়টি দেখবেন।এ সময় কনস্টেবল আলম ওসির কথার পাল্টা জবাব দেন এবং উত্তেজিত হন।

এ অবস্থায় সহকারী উপ-পরিদর্শক মতিউর রহমান তাকে শান্ত করে বাইরে নিয়ে যান। অন্যদিকে অতিরিক্ত পুলিশ সুপারকে সাথে নিয়ে নিজ কার্যালয়ে ঢোকেন ওসি।

কিছুক্ষণ পর আবারও ধেয়ে আসেন গাড়ী চালক কনস্টেবল আলমগীর হোসেন (আলম)। তিনি গাড়ির উপরে দাঁড়িয়ে চিৎকার দিয়ে ওসিকে উদ্দেশ্য করে বলেন, আমি আপনাকে দেখে নিব।

এ বিষয়ে সলঙ্গা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আব্দুর রফিক জানান, আমি আগেও শুনেছি সে (কনস্টেবল আলমগীর) সকলের সাথে দুর্ব্যবহার করে আসছে। আজ নিজে চোখে দেখলাম। বিষয়টি আমি স্যারকে (এসপি) জানাব।
অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (রায়গঞ্জ ও সলঙ্গা সার্কেল) আব্দুর রউফ এ বিষয়ে বলেন, তদন্ত সাপেক্ষে বিভাগীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

About admin

Check Also

মায়ার কাছে ত্রাণ নিতে গিয়ে চার নারী অজ্ঞান

জামালপুরের মেলান্দহ উপজেলায় ত্রাণ নিতে গিয়ে প্রচণ্ড রোদে চার নারী জ্ঞান হারিয়ে অসুস্থ হয়ে পড়েছেন।শনিবার …