বাবার মৃত্যু খবরে দেশে ফিরে নিজেই হলেন লাশ

4

বাবার মৃত্যুর খবরে দেশে গিয়ে দুবাই প্রবাসী এক বাংলাদেশি যুবক হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে মারা গেছেন । তার অকাল মৃত্যুতে শোকের ছায়া নেমেছে আরব আমিরাতে কর্মরত বাংলাদেশিদের মধ্যে।

মৃত তাওফিক রহমান (৩৫) দুবাইয়ের প্রফেশনাল ভিডিও ও ফটো ইকুইপমেন্ট বিপণী প্রতিষ্ঠান অ্যাডভান্সড মিডিয়ায় বিপণনকর্মী হিসেবে কাজ করতেন। তিনি নওগাঁ জেলা সদরের দুর্গাপুরের বাসিন্দা মরহুম ময়েজ উদ্দিন আহমদের একমাত্র ছেলে।

দুবাইয়ে একই প্রতিষ্ঠানে কর্মরত তার সহকর্মী ও বন্ধু চট্টগ্রাম জেলার রাঙ্গুনিয়া থানার মোহাম্মদ রুবেল বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “বাবার মৃত্যুর খবর পেয়ে তাওফিক মা, স্ত্রী ও দুই বোনের পাশে দাঁড়াতে গত ২৯ অক্টোবর দেশে ফিরে যান। গত শনিবার সকালে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে তিনিও অকালে মৃত্যুবরণ করেন।”

তিনি বলেন, “প্রবাসী তাওফিকের বিয়ে ছয় বছর হলেও তার কোনও সন্তান ছিলো না। স্ত্রী আল মাহমুদা খানমকে দুবাই নিয়ে আসার জন্য তিনি ভিসা, এয়ার টিকেট, বাসা- সব ঠিক করে ফেলেছিলেন।”

এদিকে প্রাণোচ্ছ্বল তাওফিকের অকাল মৃত্যুতে শোকের ছায়া নেমে এসেছে বন্ধু, সহকর্মীসহ দুবাইয়ের চেনা মহলে।

মিশরীয় সহকর্মী করিম মাকিন তাওফিকের ফেইসবু্ক টাইমলাইনে লিখেছেন- ‘মে ইওর সোল রেস্ট ইন পিস ডিয়ার ব্রাদার, উই উইল নেভার ফরগেট ইউ।’

আরেকজন সহকর্মী কেনিয়ার নাগরিক শিরো রুথি মৃত তাওফিকের স্মৃতিচারণ করতে গিয়ে ফেইসবুকে লিখেন- “হোয়াট আ নাইস ডিপার্টেড সোল হি ওয়াজ…লাইফ ইজ সিম্পলি শর্ট। মে হি রেস্ট ইন পিস।”