ছাগল চুরি করে জরিমানা দিলেন আ.লীগ নেতা

6

পিরোজপুরের নাজিরপুর উপজেলার উদয়তারা গ্রামে ফিরোজা বেগম নামের এক বিধবার ছাগল চুরির অভিযোগে লোকমান ব্যাপারী নামের এক আওয়ামী লীগ নেতাকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। গতকাল সোমবার রাতে উপজেলার শ্রীরামকাঠি বাজারে আওয়ামী লীগের কার্যালয়ে শ্রীরামকাঠি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান উত্তম কুমার মৈত্রের সভাপতিত্বে এ সালিস বৈঠক হয়। লোকমান ব্যাপারী শ্রীরামকাঠি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ৭ নম্বর ওয়ার্ড শাখার সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক।

সালিসে উপস্থিত কয়েকজন ব্যক্তি ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, উদয়তারা গ্রামের বিধবা ফিরোজা বেগমকে (৬০) দুই বছর আগে সহায়তা হিসেবে একটি বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা একটি ছাগল দেয়। গত ১ নভেম্বর গর্ভবতী ছাগলটি একই গ্রামের লোকমান ব্যাপারী চুরি করে ২ হাজার ৫০০ টাকায় বিক্রি করে দেন। গত ২৫ নভেম্বর ফিরোজা বেগম শ্রীরামকাঠি ইউপি চেয়ারম্যানের কাছে লোকমান ব্যাপারীর বিরুদ্ধে ছাগল চুরির অভিযোগে লিখিত অভিযোগ করেন। অভিযোগ পেয়ে ইউপি চেয়ারম্যান উত্তম কুমার মৈত্র লোকমানকে নোটিশ করেন। গতকাল রাতে শ্রীরামকাঠি বাজারে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের কার্যালয়ে সালিস বৈঠক বসে। সালিস বৈঠকে উপজেলা যুবলীগের সভাপতি মো. খোকন কাজী, শ্রীরামকাঠি বন্দর ব্যবসায়ী সমিতি সভাপতি ফারুক হোসেন হাওলাদার, মুক্তিযোদ্ধা নিত্যানন্দ হালদারসহ গণ্যমান্য ব্যক্তিরা উপস্থিত ছিলেন।

কৃষক লীগ নেতা ও ইউপি চেয়ারম্যান উত্তম কুমার মৈত্র বলেন, ‘লোকমান ব্যাপারী দুর্ধর্ষ প্রকৃতির লোক। তাঁর বিরুদ্ধে অনেক অভিযোগ রয়েছে। একজন দরিদ্র বিধবার সহায়তা হিসেবে পাওয়া ছাগল চুরির অপরাধে তাঁকে আমরা ১০ হাজার টাকা জরিমানা করেছি। এ ছাড়া সামাজিক বিচার হিসেবে ২০টি চড়-থাপ্পড় মেরেছি। জরিমানার টাকা আদায় করে ছাগলের মালিককে দেওয়া হবে।’

ফিরোজা বেগম বলেন, ‘লোকমান ছাগল চুরি করে হাটে নিয়ে বিক্রির সময় কয়েকজন লোক দেখে ফেলেন। পরে লোকজনের কাছে শুনে আমি ইউপি চেয়ারম্যানের কাছে লোকমানের বিরুদ্ধে অভিযোগ করি।’

লোকমান ব্যাপারীর মুঠোফোন বন্ধ থাকায় তাঁর সঙ্গে যোগাযোগ করা যায়নি। সুত্র প্রথম আলো