Breaking News
Home / আন্তর্জাতিক / প্রথমবারের মতো সাবমেরিন থেকে পারমাণবিক ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা চালিয়েছে পাকিস্তান

প্রথমবারের মতো সাবমেরিন থেকে পারমাণবিক ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা চালিয়েছে পাকিস্তান

প্রথমবারের মতো পারমাণবিক বোমা বহনে সক্ষম সাবমেরিন থেকে ‘বাবর-৩’ ক্রুজ ক্ষেপণাস্ত্রের সফল পরীক্ষা চালিয়েছে পাকিস্তান। দেশটির সেনাবাহিনী এক বিবৃতিতে এই খবর জানিয়েছে।পাকিস্তানের সেনাবাহিনীর এক সূত্রের বরাত দিয়ে ফরাসি বার্তা সংস্থা এএফপি জানিয়েছে, মধ্যপাল্লার ‘বাবর-৩’ ক্রুজ ক্ষেপণাস্ত্রটি ৪৫০ কিলোমিটার দূরের লক্ষ্যবস্তুতেও আঘাত হানতে পারে। ভারত মহাসাগরের কোনও একটি স্থান থেকে ক্ষেপণাস্ত্রটি উৎক্ষেপণ করেছে পাকিস্তান।

ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষার পর পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরীফ বলেছেন, ‘এই পরীক্ষা প্রযুক্তিগত ক্ষেত্রে পাকিস্তানের সক্ষমতাকে প্রমাণ করেছে।’ বিশ্লেষকদের মতে, এই পারমাণবিক ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা ভারত-পাকিস্তানের মধ্যকার উত্তেজনা আরও বাড়াবে। সম্প্রতি ভারতের আন্তমহাদেশীয় পারমাণবিক ক্ষেপণাস্ত্রের সফল পরীক্ষার পর পাকিস্তান এ পারমাণবিক ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষা করলো।

পারমাণবিক শক্তিধারী দুই প্রতিবেশী দেশ ভারত ও পাকিস্তান ১৯৪৭ সালে ব্রিটেনের কাছ থেকে স্বাধীনতা লাভের পর তিনবার যুদ্ধে জড়িয়েছে। দুটি দেশই ১৯৯৮ সালের মে মাসে পারমাণবিক পরীক্ষা চালানোর পর থেকে বিভিন্ন পাল্লার ক্ষেপণাস্ত্র তৈরি করে আসছে।

উল্লেখ্য, ভারত ২০০৮ সালে সাবমেরিন থেকে পারমাণবিক বোমার সফল পরীক্ষা চালিয়েছে এবং ২০১৩ সালে সাবমেরিন থেকে ক্রুজ ক্ষেপণাস্ত্রের সফল পরীক্ষা চালিয়েছে।

পাকিস্তানের ‘বাবর-৩’ ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষার ব্যাপারে ভারতের পক্ষ থেকে তাৎক্ষণিক কোনও মন্তব্য পাওয়া যায়নি।সূত্র: বিবিসি।

Facebook Comments
Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.