ধর্ষণের পর কিশোরী অন্তঃসত্ত্বা দুই সন্তানের জনক গ্রেপ্তার

77

কুড়িগ্রামের ভূরুঙ্গামারীতে এক বাক ও বুদ্ধি প্রতিবন্ধী কিশোরীকে ধ’র্ষণের অভিযোগে লাকু মিয়া (৩২) নামে দুই সন্তানের জনককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।
বৃহস্পতিবার ভোরে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। লাকু মিয়া পাইকেরছড়া ইউনিয়নের গছিডাঙ্গা গ্রামের পনির উদ্দিনের ছেলে। তার স্ত্রী এবং দুই সন্তান রয়েছে।

এ ঘটনার পরে লাকু মিয়াকে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে বলে জানিয়েছে ভূরুঙ্গামারী থানার অফিসার ইনচার্জ মো. ইমতিয়াজ কবির।
তিনি জানান, প্রায় দুই মাস ধরে কৌশলে ওই বাক ও বুদ্ধি প্রতিবন্ধী কিশোরীকে একাধিকবার ধ’র্ষণ করে প্রতিবেশী লাকু মিয়া। এতে ভিকটিম অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়লে বাহ্যিকভাবে কিছু লক্ষণ ফুটে ওঠে। বিষয়টি নিয়ে পরিবারের লোকজনের সন্দেহ হয়। এরপর তারা ইশারা-ইঙ্গিতে ভিকটিমকে জিজ্ঞাসাবাদ করার পর ধ’র্ষণের ঘটনা এবং ধর্ষ’ককে শনাক্ত করতে সক্ষম হয়।

ভূরুঙ্গামারী থানা সুত্রে জানা গেছে, বাক প্রতিবন্ধী ধর্ষিতার বাবা বাদী হয়ে লাকু মিয়াকে আসামি করে বুধবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে থানায় মামলা দায়ের করেন। এরপর আসামিকে গ্রেপ্তার করা হয়। কিশোরীকে ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য জেলা সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

Loading...