লঞ্চ উদ্ধারে এসে প্রত্যয়ের কাণ্ড!

38

লঞ্চ উদ্ধারে এসে পোস্তগোলায় বুড়িগঙ্গা নদীর ওপর বাংলাদেশ-চীন মৈত্রী সেতু-১ (প্রথম বুড়িগঙ্গা সেতু) এ ধাক্কা মারে উদ্ধারকারী জাহাজ ‘প্রত্যয়’। এতে করে সোমবার সন্ধ্যা থেকে সেতুর ওপর দিয়ে সব ধরনের যানবাহন চলাচল বন্ধ রয়েছে।
সওজের অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী (ঢাকা অঞ্চল) সবুজ উদ্দিন খান বলেন, ‘সেতুর একটি জায়গায় ফাটল দেখা দেয়ায়, যানবাহন চলাচল স্থগিত করা হয়েছে। আজ আমাদের বিশেষজ্ঞরা পরিদর্শন করার পর পরবর্তী ব্যবস্থা নেয়া হবে।’
এ পরিস্থিতিতে বিআইডব্লিউটিএর চেয়ারম্যান কমোডর গোলাম সাদেক বলেন, উদ্ধারকারী জাহাজের মাস্টার দ্রুত দুর্ঘটনাস্থলে পৌঁছতে চাইছিলেন। ভুলে সেতুতে আঘাত লাগতে পারে। তবে, সেতুতে যে ফাটল তৈরি হয়েছে, তা তেমন মারাত্মক নয়। উদ্ধারকারী জাহাজটি সেতু পার হতে না পারায়, বিকল্প পথ দিয়ে গিয়ে উদ্ধার অভিযান চালিয়েছে বলে জানান বিআইডব্লিউটিএ চেয়ারম্যান।

সোমবার (২৯ জুন) সকাল ১০ টার দিকে বুড়িগঙ্গায় মুন্সীগঞ্জ থেকে আসা ‘মর্নিং বার্ড’ নামের যাত্রীবাহী একটি লঞ্চ সদরঘাটের জেটিতে থামতে এগিয়ে আসছিল। ঠিক একই সময়ে ঢাকা-চাঁদপুর রুটের ময়ূর-২ লঞ্চটি সদরঘাট থেকে চাঁদপুরের দিকে যাওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছিল। কিন্তু মর্নিং বার্ড লঞ্চটি যখন ময়ূর-২ লঞ্চকে অতিক্রম করছিল, ঠিক তখনই মর্নিং বার্ডকে অনেকটা চাপা দিয়ে ডুবিয়ে দেয় ময়ূর-২। এ সময় মর্নিং বার্ড লঞ্চে প্রায় ১০০ শ যাত্রী ছিল বলে জানা যায়।

যার মধ্যে কয়েকজন সাঁতরে জীবন বাঁচালেও এখন পর্যন্ত ৩২ জনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। আরো অনেকে এখনও নিখোঁজ আছেন। তাদের সন্ধানে উদ্ধার তৎপরতা চালাচ্ছেন ফায়ার সার্ভিসের তিনটি ইউনিট, নৌবাহিনীর ডুবুরি দলের সদস্য ও স্থানীয়রা।
বাংলাদেশ জার্নাল/এইচকে

Loading...