এবার নেপালের দাবিকৃত ভারতীয় ভূখণ্ড লিপুলেখে সেনা সমাবেশ করলো চীন

141

এই লিপুলেখ গিরিপথ ভারত-নেপাল-চীন সীমান্তের ট্রাই জংশনে অবস্থিত। শতকের পর শতক ধরে কৈলাশ ও মানস সরোবরে যাবার জন্য এই পথটাই ব্যবহার করে আসছেন তীর্থযাত্রীরা। দ্য হিন্দু।

প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখার (এলএসি) কাছে চীনা পিপলস লিবারেশন আর্মির (পিএলএ) একটি ব্যাটালিয়ন মোতায়েন করা হয়েছে বলে ভারতীয় সেনাবাহিনী জানিয়েছে। এই পরিস্থিতিতে এলাকায় সতর্ক নজরদারি চালাচ্ছে ভারতীয় সেনা এবং ভারত-তিব্বত সীমান্ত পুলিশ (আইটিবিপি)। হিন্দুস্তান টাইমস।

লিপুলেখের পরিস্থিতি কূটনৈতিক ভাবে নয়াদিল্লির কাছে আরও স্পর্শকাতর। জুন মাসে নেপাল পার্লামেন্টে পাস হওয়া মানচিত্র অনুমোদন বিলে উত্তরাখণ্ডের কালাপানি ও লিম্পিয়াধুরার পাশাপাশি লিপুলেখ গিরিপথকেও ‘নেপালের ভূখণ্ড’ হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে। বিষয়টি নিয়ে নয়াদিল্লির আপত্তিতে কর্ণপাত করেননি নেপালের প্রধানমন্ত্রী কে পি শর্মা ওলি। এই পরিস্থিতিতে ওই অঞ্চলে চীনা ফৌজের উপস্থিতি বিষয়টিকে নতুন মাত্রা দিয়েছে। আনন্দবাজার।

ভারতীয় সেনার এক কর্মকর্তা বলেছেন, লিপুলেখ গিরিপথের অদূরে প্রায় ১,০০০ চীনা সেনা শিবির তৈরি করেছে। সঙ্গে থাকা অস্ত্রশস্ত্র এবং রসদের পরিমাণ থেকে পরিষ্কার, যু’দ্ধের প্রস্তুতি নিয়েই তারা এসেছে। উত্তর সিকিম এবং অরুণাচল প্রদেশের প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখাতেও সম্প্রতি চীনা সেনাদের তৎপরতা ক্রমশ বাড়তে শুরু করেছে বলে তিনি জানিয়েছেন। সম্পাদনা: ইকবাল খান