একই রশিতে ঝুলছিল প্রেমিক-প্রেমিকার লাশ

87

টাঙ্গাইলের কালিহাতীতে এক নারী ও পুরুষের রহস্যজনক মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে। শুক্রবার উপজেলার রাজাফৈর পল্টন পাড়া গ্রামে একই রশিতে ঝুলন্ত আলেয়া (৩৯) ও শাহজাহানের (৪১) লাশ দুটি উদ্ধার করে পুলিশ।

শাহজাহান ও আলেয়া বিবাহিত। বাড়ি পাশাপাশি হওয়ায় তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠেছিল বলে স্থানীয়রা জানান।

স্থানীয়রা আরও জানান, তারা দেড় মাস আগে বাড়ি থেকে পালিয়ে আত্মগোপনে ছিলেন। গত বুধবার শাহজাহান আলেয়াকে নিয়ে তার বাড়িতে ওঠেন। এ ঘটনায় এলাকায় আলোচনা-সমালোচনার ঝড় উঠে। পরে একই গ্রামের আজমত ও কাসেম বৃহস্পতিবার রাতে সালিশের আয়োজন করার দায়িত্ব নেন। পরে শুক্রবার সকালে আলেয়ার বাবার গোয়াল ঘরে তাদের ঝুলন্ত লাশ পাওয়া যায়।

নিহত আলেয়ার বাবা দেলোয়ার হোসেন বলেন, দেড় মাস আগে আমার মেয়েকে নিয়ে শাজাহান পালিয়ে যায়। গত বুধবার আলেয়া ও শাজাহান বাড়িতে আসে। পরে শাহজাহানের শ্যালক ইয়াকুব আলীর ছেলে শিপন, খালেকের মেয়ে মিম, হাবিবুরের স্ত্রী ঝর্না, শাহজাহানের স্ত্রীর বড় বোন ইয়ারজান, আজমত ও কাশেম মিলে তাদের দু’জনকে মারধোর করেন।

কালিহাতী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সওগাতুল আলম জানান, তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক ছিল। ঝুলন্ত অবস্থায় তাদের লাশ পাওয়া গেছে। পরে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য টাঙ্গাইল শেখ হাসিনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। ঘটনাটি তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।