ফেসবুকে আত্মহত্যার স্ট্যাটাস, বাসায় গিয়ে হাজির পুলিশ

76

জরুরি সেবা ৯৯৯ নম্বরে ফেসবুকে আত্মহত্যার স্ট্যাটাস দেয়া এক বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রের সহপাঠীর ফোন কলে পেয়ে ওই ছাত্রের বাসায় গিয়ে তাকে সান্ত্বনা ও পরামর্শ দিয়েছে ঢাকার সবুজবাগ থানার পুলিশ।

সোমবার সন্ধ্যায় ৯৯৯ এ ঢাকার বসুন্ধরা আবাসিক এলাকা থেকে এক কলার জানান, তিনি ঢাকার একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী। একই বিশ্ববিদ্যালয়ের এমবিএর এক শিক্ষার্থী ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়েছেন তিনি আত্মহত্যা করতে যাচ্ছেন।
এরপর থেকে তিনি ওই শিক্ষার্থীর ফোনে কল করে যাচ্ছিলেন, কিন্তু ফোন বন্ধ পাচ্ছিলেন। এরপর তিনি একাধিক সহপাঠীর সাথে যোগাযোগ করে আত্মহত্যার স্ট্যাটাস দেয়া শিক্ষার্থীর বাসার ঠিকানা সংগ্রহ করে ৯৯৯ এ ফোন করেছেন।

সম্পর্কিত খবর

তিনি জানান, ওই শিক্ষার্থী ঢাকার সবুজবাগ থানাধীন আহমেদবাগ, বাসাবো বালুরমাঠ সংলগ্ন, সালাম ডেইরির বিপরীত পাশের একটি ভবনের স্থায়ী বাসিন্দা।
৯৯৯ তাৎক্ষণিকভাবে বিষয়টি সবুজবাগ থানায় জানিয়ে দ্রুত ব্যবস্থা নেয়ার জন্য অনুরোধ জানায়। ৯৯৯ ডিসপাচার এসআই মো. মাহফুজুর রহমান ও ৯৯৯ ডিউটি টিম সুপারভাইজার ইন্সপেক্টর নুর মোহাম্মদ বিষয়টি নিয়ে সংশ্লিষ্ট থানা পুলিশ এবং কলারের সাথে যোগাযোগ করে পুলিশী তৎপরতার আপডেট নিতে শুরু করেন।
৯৯৯ থেকে সংবাদ পেয়ে সবুজবাগ থানার একটি পুলিশ দল ঘটনাস্থলে যায়। পরে সবুজবাগ থানার এসআই (সাব ইন্সপেক্টর) মো. মনির ৯৯৯ কে ফোনে জানান, তারা ওই শিক্ষার্থীর বাসায় গিয়ে তার পরিবারের সদস্যদের এ ঘটনা জানান, ইতোমধ্যে ওই শিক্ষার্থীর কয়েকজন সহপাঠীও সেখানে উপস্থিত হন। তারপর সবাই মিলে বুঝিয়ে ওই শিক্ষার্থীকে তার রুম থেকে বের করে আনেন এবং তাকে তাৎক্ষণিকভাবে প্রয়োজনীয় সান্ত্বনা (কাউন্সেলিং) ও পরামর্শ দেন।
পূর্বপশ্চিমবিডি/এসএস