ইউএনওর বাসভবনে অস্ত্রসহ প্রবেশকালে ছাত্রলীগ নেতা গ্রেফতার|

136

মুন্সীগঞ্জ জেলার গজারিয়ার উপজেলা নির্বাহী অফিসারের বাসভবনে অস্ত্রসহ প্রবেশ করার সময় ছাত্রলীগের গজারিয়া উপজেলার যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক নাসির উদ্দিন ও অটোচালক আল হাসানকে আটক করেন দায়িত্বে থাকা আনসার বাহিনী।
আটককৃত দুজনের বিরুদ্ধেই দস্যুতা ৩৯২ ধারার আইনে মামলা রুজু করা হয়েছে। এ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন গজারিয়া থানার ওসি মো রইছ উদ্দিন।

জানা যায়, গতকাল শনিবার (২৮ আগস্ট) রাত সাড়ে ৮টায় উপজেলা নির্বাহী অফিসারের বাসভবনে প্রবেশ করে ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক নাসির উদ্দিন (২৩) ও অষ্টম শ্রেণিতে পড়ুয়া অটোচালক আল হাসান (১৪)।
গ্রেফতারকৃত ছাত্রলীগ নেতা নাসিরুদ্দিন হোসেন্দী ইউনিয়নের আশ্রাফদী গ্রামের খোকন মিয়ার ছেলে। একই এলাকার আল হাসান প্রবাসী আলালের ছেলে।

মামলার বিবরণ সূত্রে গেছে, শনিবার রাত সাড়ে ৮টায় উপজেলা নির্বাহী অফিসারের বাসভবনে হামলার উদ্দেশে প্রবেশ করে ছাত্রলীগ নেতা নাসির উদ্দিন ও অটোচালক আল হাসান। বাসভবনের ভেতরে হামলার সময় তাদেরকে আটক করে ফেলে দায়িত্বে থাকা আনসার বাহিনী। পরে তল্লাশি চালিয়ে নাসিরের কাছ থেকে ধারালে বিদেশী সেভেন গিয়ার অস্ত্র পায় তারা। পরে নাসির উদ্দিন ও আল হাসানকে আটক করে গজারিয়া তদন্ত কেন্দ্রে হস্তান্তর করে দায়িত্বরত আনসার।

এ বিষয়ে হোসেন্দী ইউনিয়ন ছাত্রলীগ সভাপতি রিফাত হোসেন জানান, গ্রেফতারকৃত ছাত্রলীগ নেতা নাসির উদ্দিন হোসেন্দী ইউনিয়ন ছাত্রলীগ কমিটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক। তার অস্ত্রসহ গ্রেফতার করার সংবাদটি শুনে আমি ব্যক্তিগতভাবে লজ্জিত। আমার কমিটিতে এই ধরনের সদস্য প্রত্যাশা করি না।

গ্রেফতারকৃত ছাত্রলীগ নেতা নাসির উদ্দিনের মা জানান, তার ছেলে মানুষের কথা শুনে। টাকার জন্য সে সবকিছু করতে পারে।
অন্যদিকে স্থানীয়রা জানায়, ছাত্রলীগ নেতা নাসির উদ্দিন একজন মাদকাসক্ত। সে প্রায়ই নেশার টাকার জন্য তার বাবাকে মারধর করে।
এ বিষয়ে গজারিয়া থানার ওসি মো. রইছ উদ্দিন জানান, একটি ধারালো অস্ত্রসহ আটক নাসির উদ্দিন ও আল হাসনের বিরুদ্ধে দস্যুতা ৩৯২ ধারায় মামলা হয়েছে।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার জিয়াউল ইসলাম চৌধুরী সাংবাদিকদের জানান, রাত ৮টার সময় সংরক্ষিত বাসভবনের ভেতরে প্রবেশকালে দায়িত্বরত আনসার বাহিনীর সদস্যরা তাকে চেক করে। চেক করার সময় তার কাছ থেকে ধারালো অস্ত্র পায়। দুজনকেই গজারিয়া থানার দায়িত্বরত অফিসার ইনচার্জের কাছে দেওয়া হয়েছে।