পরীক্ষা না দিয়েই পাশ করলেন ঢাবি অধিভূক্ত শিক্ষার্থী!|

72

ফের আলোচনায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত সাত কলেজের ফলাফল। নতুন করে আলোচনায় এসেছে পরীক্ষায় অংশগ্রহণ না করে জিপিএ ৩.২৫ পেয়েছে তিতুমীর কলেজের এক শিক্ষার্থী।
তিতুমীর কলেজ মার্কেটিং বিভাগের শিক্ষার্থী রোমান হোসেন জানান তিনি ব্যাক্তিগত সমস্যার কারণে অনুষ্ঠিত ৩য় বর্ষের চূড়ান্ত পরীক্ষার দুইটি কোর্সে অংশ নিতে পারেননি। উল্লেখিত ২টি কোর্স হচ্ছে ‘বিজনেস স্টাটিসটিক্স-২’ যার বিষয় কোড হচ্ছে ২৩২৩০৭ এবং অন্যটি হচ্ছে ‘মাইক্রো ইকোনোমিকস’ যার বিষয় কোড ২৩২৩১৩। এই দুইটি কোর্সের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়েছে যথাক্রমে ২২ই ফেব্রুয়ারী এবং ৩ই মার্চ ২০২১ইং।

গত আগস্ট মাসের ২৯ তারিখ প্রকাশিত হয় মার্কেটিং বিভাগের ফলাফল। প্রকাশিত ফলাফলে দেখা যাচ্ছে ২২ই ফেব্রুয়ারী অনুষ্ঠিত ‘বিজনেস স্টাটিসটিক্স-২’ বিষয়ে পরীক্ষায় অংশগ্রহণ না করেও ৩.২৫ পেয়েছেন এই শিক্ষার্থী। অন্যদিকে ৩ মার্চ অনুষ্ঠিত পরীক্ষার বিষয়ের ফলাফল মার্কশীটে দেখাই যাচ্ছে না! যার ফলে শিক্ষার্থী কিছুটা উদ্বিগ্নতার সাথে সময় কাটাচ্ছে।
এই বিষয়ে রোমানের সাথে কথা বললে তিনি বলেন, “আমাদের স্নাতক তৃতীয় বর্ষে আটটি কোর্সের মধ্যে আমি ছয়টিতে অংশ নেই। বাকি ২টি কোর্সে ব্যক্তিগত সমস্যার কারণে অংশ নিতে পারিনি। ২৯ ই আগস্ট প্রকাশিত ফলাফলে দেখা যাচ্ছে অনুপস্থিত থাকা সত্ত্বেও একটা কোর্সে ৩.২৫ পেয়েছি কিন্তু অন্য কোর্সটি মার্কশীটে দেখাচ্ছে না।”

প্রকাশিত ফলাফলের মধ্যে কেন এমন তথ্য দেখাচ্ছে তা জানতে চাইলে তিতুমীর কলেজ মার্কেটিং বিভাগের প্রধান মোয়েদ উদ্দিন বলেন, “এমনটা হওয়ার কথা না। তবে সার্ভারের ত্রুটির কারণে এমনটা হতে পারে।” এসময় তিনি শিক্ষার্থীকে দ্রুত সময়ের মধ্যে ঢাবি পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক বরাবর চিঠি দিয়ে সমাধান করার জন্যও পরামর্শ দেন।
এছাড়াও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক বাহালুল হক চৌধুরী বলেন, “রেজিষ্ট্রেশন নাম্বার কিংবা বিষয় কোড দেওয়ার ক্ষেত্রে ভুল হতে পারে।” শিক্ষার্থী রেজিষ্ট্রেশন কার্ড নিয়ে একটি আবেদন করলে সার্ভার থেকে সমাধান করে দেওয়া হবে বলে আশ্বাস দেন পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক।
ওমর ফারুক/বার্তা বাজার/এসজে