দক্ষিণ আফ্রিকায় গুলি করে ও শ্বাসরোধে দুই বাংলাদেশিকে হত্যা

89

দক্ষিণ আফ্রিকায় একদিনে দুই বাংলাদেশিকে গুলি করে ও শ্বাসরোধে হত্যা করা হয়েছে। মঙ্গলবার ভোরে ও সকালে নর্থওয়েস্ট প্রদেশের ক্লাসডর্প ও লিম্পোপু প্রদেশের পলোকোয়ান এলাকায় এসব ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন- সিলেটের গোলাপগঞ্জ উপজেলার লক্ষীপাশা ইউনিয়নের পালোপাড়া গ্রামের সজীব আলীর ছেলে হাফেজ আব্দুল আহাদ, নোয়াখালীর সেনবাগ উপজেলার কেশারপাড় ইউনিয়নের ইটবাড়িয়া গ্রামের শফিকুল ইসলাম।

প্রবাসী বাংলাদেশিরা জানান, হাফেজ আব্দুল আহাদ মঙ্গলবার স্থানীয় সময় ভোর ৪টার দিকে অলমারান্সট্যাড নিজ ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের মালামাল কেনার উদ্দেশ্যে ক্লাসডর্প শহরে যাচ্ছিলেন। পথে ডাকাতদল তাকে গুলি করলে ঘটনাস্থলেই তিনি নিহত হন।

পলোকোয়ানে বসবাসকারী বাংলাদেশি দেলোয়ার হোসেন বলেন, প্রতিদিনের মতো মঙ্গলবার সকালে নিজের দোকান খুলেন শফিকুল ইসলাম। কিছুক্ষণ পর কয়েকজন ক্রেতা তার কাছে কিছু মালামাল চায়। সেগুলো গুছিয়ে দেওয়ার সময় তারা পেছন থেকে শফিকুল ইসলামকে জাপটে ধরে মুখে টেপ পেঁচিয়ে ও শ্বাসরোধে মৃত্যু নিশ্চিত করে। এরপর তারা দোকান থেকে টাকা ও মূল্যবান মালামাল নিয়ে পালিয়ে যায়। পরে স্থানীয় ও প্রবাসী বাংলাদেশিরা তার লাশ উদ্ধার করে।

সেনবাগে্র কেশারপাড় ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মো. বেলাল ভূঁঞা বলেন, শফিকুল ইসলামের মৃত্যুর খবর গ্রামের বাড়িতে পৌঁছালে পরিবারের সবাই কান্নায় ভেঙে পড়েন। তার মৃত্যুতে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

একদিনে দুই প্রবাসী খুনের ঘটনায় বাংলাদেশি কমিউনিটিতে শোকের ছায়া নেমে এসেছে। দক্ষিণ আফ্রিকা প্রবাসীরা খুনিদের খুঁজে বের করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছেন।