ইসরাইলকে বিপুল পরিমাণ অর্থ দেওয়া লজ্জাজনক , অর্থ দেওয়া বন্ধ করুন: মার্কিন এমপি

88

রাতারাতি ইসরাইলকে বিপুল পরিমাণ অর্থ বরাদ্দ দেওয়ার ঘটনাকে লজ্জাজনক বলে উল্লেখ করেছেন ইলিয়ন অঙ্গরাজ্য থেকে নির্বাচিত মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিনিধি পরিষদের নারী সদস্য ম্যারি নিউম্যান।

৪২০ সদস্যের যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিনিধি পরিষদে ইসিরাইলকে ১ বিলিয়ন ডলার অনুদানের যে বিলটি উত্থাপন করা হয়েছিল, তাতে মাত্র ৯ জন সদস্য ভেটো দিয়েছেন।তাদের মধ্যে ম্যারি নিউম্যান একজন। তিনি ছাড়াও এ ঘটনায় মার্কিন প্রশাসনের ওপর ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছেন দেশটির প্রতিনিধি পরিষদে ডেমোক্র্যাট দলের সদস্য ইলহান ওমর। আরব নিউজের।

ম্যারি নিউম্যান বোরবার এক ভাষণে বলেন, মার্কিন অর্থে কেনা অস্ত্রে তারা প্রতিনিয়ত নিরপরাধ ফিলিস্তিনিদের হত্যা করছে। ইসরাইলের মানবতাবিরোধী অপরাধ খতিয়ে না দেখে এভাবে বিপুল পরিমাণ অর্থ অনুমোদন দেওয়ায় আরও বেপরোয়া হয়ে উঠবে ইহুদিবাদী দেশটি।

ইসরাইলকে আকাশ প্রতিরক্ষাব্যবস্থা আয়রন ডোমের ত্রুটি সারাতে গত সপ্তাহে জরুরিভিত্তিতে ওই অর্থ বরাদ্দের আনুমোদন দেয় মার্কিন কংগ্রেস।ইসরাইলের কাছ থেকে মার্কিন সিনেটদের আর্থিক সুবিধা নেওয়ার ঘটনারও নিন্দা জানান ম্যারি নিউম্যান।যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিনিধি পরিষদ গত বৃহস্পতিবার ইসরাইলের আয়রন ডোম প্রতিরক্ষাব্যবস্থার জন্য অতিরিক্ত এই এক বিলিয়ন ডলার অনুমোদন করেছে।

এটি নিয়ে বেশ কিছু দিন ধরে বিতর্ক চললেও অবশেষে তা অনুমোদন পেয়েছে। এদিন আইনপ্রণেতারা ৪২০-৯ ভোটে বিলটি পাস করেন। এর মাধ্যমে আয়রন ডোম প্রতিরক্ষাব্যবস্থায় যুক্তরাষ্ট্রের সমর্থনের বিষয়টি জোরালো হলো।

বিলটি এবার মার্কিন কংগ্রেসের উচ্চকক্ষ সিনেটে যাবে। আশা করা হচ্ছে— সিনেটে সহজেই বিলটি পাস হবে। সিনেটে পাস হওয়ার পর মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন বিলে স্বাক্ষর করলে তা পূর্ণাঙ্গ আইনে পরিণত হবে। জো বাইডেন ইতোমধ্যে ইসরাইলের জন্য এই তহবিল সরবরাহের ব্যাপারে সমর্থন করেছেন।

ইসরাইলকে সহায়তা করার ব্যাপারে যুক্তরাষ্ট্রে ব্যাপক বিতর্ক হচ্ছে। মার্কিন কংগ্রেসের অনেকেই সহায়তার ব্যাপারে বলছেন, ইসরাইলকে সহায়তা দেওয়ার আগে মানবাধিকারের বিষয়ে তাদের অতীত নিয়ে পর্যালোচনা করা উচিত।

ইসরাইল বছরে যুক্তরাষ্ট্র থেকে ৩.৮ বিলিয়ন ডলারের সামরিক সহায়তা পেয়ে থাকে। তার মধ্যে ৫০০ মিলিয়ন ডলার দেওয়া হয় ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষাব্যবস্থার জন্য।২০১৬ সালে এ বিষয়ে যুক্তরাষ্ট্রের তৎকালীন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা ১০ বছর মেয়াদি একটি সমঝোতা স্মারকে স্বাক্ষর করেছিলেন।