কোরআন অবমাননার জের ধরে হাতিয়ায় পূজা মন্ডপ ভাংচুর,আটক ৪

120

কুমিল্লায় পবিত্র কোরআন অবমাননার জের ধরে হাতিয়ায় পূজা মন্ডপ ভাংচুরের ঘটনা ঘটেছে। এ সময় পুলিশ ৪জনকে আটক করে।

এরমধ্যে আটককৃত মো. সোহেল (২৫) হাতিয়া পৌরসভার ৩নম্বর ওয়ার্ডের আবুল কালামের ছেলে। এ ছাড়া তাৎক্ষণিক ৩জনের নাম জানাতে পারেনি পুলিশ।

বুধবার রাত সাড়ে নয়টার দিকে হাতিয়া পৌরসভার ১নম্বর ওয়ার্ডের লোক শ্রী শ্রী প্রিতম সাধুর বাড়ির পূজা মন্ডপে ও উপজেলার নলচিরা ৯নম্বর ওয়ার্ডে বাবা লোকনাথ পূজা মন্ডপে এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় সূত্র জানায়, কুমিল্লায় পবিত্র কোরআন অবমাননার জের ধরে রাত সাড়ে নয়টার দিকে হাতিয়া পৌরসভার ১নম্বর ওয়ার্ডের লোক শ্রী শ্রী প্রিতম সাধুর বাড়ির দূর্গা পূজা মন্ডপে শতাধিক দুর্বৃত্ত হামলা চালিয়ে ভাংচুর করে। একই সময়ে নলচিরা ৯নম্বর ওয়ার্ডে বাবা লোকনাথ পূজা মন্ডপে দুর্বৃত্তরা হামলা চালিয়ে ভাংচুর করে। এ সময় পুলিশ সদস্যরা বাধা দিলে তাদেরকে মারধর করে। উক্ত ঘটনায় এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে।

হাতিয়া থানার ওসি মো.আনোয়ারুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন। তিনি আরো জানান, অনাকাঙ্খিত ঘটনা এড়াতে পুলিশ সর্বোচ্চ সতর্ক রয়েছে।

অপর দিকে, জেলার বেগমগঞ্জ উপজেলার ১১ নং দুর্গাপুর ইউনিয়নের ২ নম্বর ওয়ার্ডের সর্বজয়া পূজা মন্ডপ,শ্রী শ্রী রাধামাধব জিউর মন্দির, ১১ নং দুর্গাপুর বনিকপাড়া পূজা ম-পে একদল দুর্বৃত্ত ভাংচুর করার চেষ্টা করে। এ সময় তারা পূজাম-পের সামনের গেটে ইট পাটকেল নিক্ষেপ করে মন্দিরের গেট ভাংচুর করে। এ ঘটনায় পূজাম-পে কর্তব্যরত পুলিশ ও গ্রাম পুলিশ সদস্য আহত হয়েছে।

নোয়াখালী পুলিশ সুপার মো.শহীদুল ইসলাম বেগমগঞ্জের পূজা মন্ডপে ইট পাটকেল নিক্ষেপের সত্যতা নিশ্চিত করেন। তিনি আরো জানান, বর্তমানে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রয়েছে