Breaking News
Home / মতামত / যারা ওড়নার মধ্যে সাম্প্রদায়িকতা খোজে তারা হিজাবের মধ্যে জঙ্গীবাদ খুজবে

যারা ওড়নার মধ্যে সাম্প্রদায়িকতা খোজে তারা হিজাবের মধ্যে জঙ্গীবাদ খুজবে

বিগত কয়েক বছরে বাংলাদেশের শিক্ষা ব্যবস্থার আমূল পরিবর্তন ঘটান এক কালের কম্যুনিস্ট নেতা নুরুল ইসলাম নাহিদ।পাঠ্যপুস্তক থেকে মুসলিম কবি দার্শনিকদের লেখা একবারে শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত ঝেটিয়ে বিদায় করেন তিনি।ব্যাপারটি এখানেই সীমাবদ্ধ ছিল না।শিক্ষা ব্যবস্থায় তিনি পশ্চিমা ও পৌত্তলিক সভত্যা আমদানি করেন।ব্যাপারটি আলেম সমাজের নিকট ফাশ হয়ে গেলে গত বছর তুমুল আন্দোলনের মুখে পোরেন নাহিদ।

যারা ফলাফলে এই বছর পাঠ্যপুস্তকে কিছু পরিবর্তন লক্ষ করা গেছে।পাঠ্যপুস্তকে মুসলিম কবী ও লেখকদের কিছু লেখা সীমিত আকারে ফেরত আনা হয়েছে এবং বিতর্কিত বিষয়গুলি বাদ দেয়া হয়েছে।কিন্তু বাংলাদেশের সেকুলার সমাজ আলেম সমাজের পক্ষে যাওয়া এই পদক্ষেপটি মেনে নিতে পারছেন না।তাই তারা জুড়ে দিয়েছেন ওরনা বিতর্ক।ওরনা এমন একটি পোষাক যা হিন্দু মুসলিম সবাই পরিধান করে।এই নিয়ে আপত্তি করার মত কোন সুযোগি নেই।কিন্তু তারাপরো এই ছোট্ট বিষয় নিয়ে তারা শিক্ষামন্ত্রীকে চাপের মধ্যে রেখে সংকেত দিতে চাইছেন যে আলেম সমাজের পক্ষে এর বেশি এক চুলও আগানো যাবেনা।

আজকে যারা ওরনার মধ্যে সাম্প্রদায়িকতা দেখছেন দুই দিন পর নিশ্চিতভাবে তারা হিজাবের মধ্যে জঙ্গীবাদ খুজবেন।হয়ত বা হিজাব নিষিদ্ধ করার দাবি জানাবেন।এরপর হয়ত তারা মাদ্রাসা বন্ধ করে দেয়ার দাবি জানাবেন।মুসলিম সমাজ যদি এই সেকুলার আগ্রাসীদের রুখে না দেয় হয়তবা আবারো শিক্ষা ব্যবস্থা নাস্তিকবাদীদের আগ্রাসনের মুখে পড়বে।  লেখক যুবায়ের আহমেদ সাংবাদিক ও সাহিত্যিক।

Facebook Comments