জেরুজালেমকে ইসরায়েলের রাজধানীর স্বীকৃতির প্রতিবাদে ঢাকায় বিক্ষোভ করবেন এরশাদ

5

সম্প্রতি মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প পবিত্র জেরুজালেমকে ইসরায়েলের রাজধানী হিসেবে স্বীকৃতি দেয়ায় তীব্র নিন্দা, ক্ষোভ ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান ও সাবেক রাষ্ট্রপতি হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদ। তিনি এই ঘোষণাকে ঘৃণ্য উল্লেখ করে তার সম্মিলিত জাতীয় জোটের পক্ষ থেকে ১২ ডিসেম্বর মঙ্গলবার রাজধানী ঢাকায় বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করবেন বলে জানিয়েছেন।

রোববার রাজধানীর ইমানুয়েলস করভেনশন সেন্টারে সম্মিলিত জাতীয় জোট আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন তিনি।
জোটের চেয়ারম্যান হিসেবে এরশাদ বলেন, ১৯৪৮ সালে ফিলিস্তিনিদের বিতাড়িত করে ইসরায়েল নামের এই হুইদি রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠা করা হয়। প্রতিষ্ঠার পর থেকেই ইহুদিরা আরবীয় ফিলিস্তিনী জনগোষ্ঠির ওপর নির্মম নির্যাতন-অত্যাচার ও দখলদারিত্ব শুরু করেছে। এখনও তা চলমান রয়েছে। দিন দিন তাদের অত্যাচারের মাত্রা বেড়েই চলেছে।

এরশাদ বলেন, আমরা মার্কিন প্রেসিডেন্টের একতরফাভাবে জেরুজালেমকে ইসরায়েলের রাজধানী ঘোষণার স্বীকৃত দেয়ার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে এই সিদ্ধান্ত প্রত্যাহারের দাবি জানাচ্ছি। এ ছাড়া কোনোভাবেই মধ্যপ্রাচ্যে শান্তি ফিরে আসবে না।
তিনি বলেন, আপনারা ইতোধ্যেই জেনেছেন ডোনাল্ড ট্রাম্পের এই ঘোষণার পর সারাবিশ্বের প্রতিবাদের ঝড় উঠেছে। জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের বিশেষ অধিবেশন বসেছে। আমরাও গোটা বিশ্বের সঙ্গে একাত্মতা ঘোষণা করে অবিলম্বে জেরুজালেমকে ইসরায়েলের দখলমুক্ত করার আহ্বান জানাচ্ছি।

সংবাদিক সম্মেলনে জাতীয় পার্টির মহাসচিব রহুল আমিন হাওলাদার, প্রেসিডিয়াম সদস্য ও পানিসম্পদ মন্ত্রী ব্যারিস্টার আনিসুল ইসলাম মাহমুদ, জিয়াউদ্দিন আহমেদ বাবলু, সৈয়দ আবু হোসেন বাবলা এমপি, অধ্যাপক দেলোয়ার হোসেন খান, এসএম ফয়সল চিশতী, মীর আবদুস সবুর আসুদ, সুনীল শুভরায় প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।
এইচএস/এনএফ/আইআই