Home / সাহিত্য / কম খরচ এবং সর্বোচ্চ ডিস্কাউন্টে বই পৌছে দিচ্ছে আমাদেরবই ডট কম

কম খরচ এবং সর্বোচ্চ ডিস্কাউন্টে বই পৌছে দিচ্ছে আমাদেরবই ডট কম

বিজনেস নিউজঃ “বই কিনে কেউ দেউলিয়া হয় না”  সৈয়দ মুজতবা আলীর একটি স্মরনীয় বাণী। সত্যিই বই কেনে কেউ দেউলিয়া হওয়ার প্রমান পাওয়া যায় নি । সাহিত্য প্রেমী বাঙ্গালিও বই থেকে দূরে নয় । পাবলিক বাস কিংবা খোলা মাঠে বই নিয়ে বসে যাওয়ার মতো বই পোকা সহজেই খুজে পাওয়া যায় ।

বই মানুষের উৎকৃষ্ট বন্ধুও বটে । অবসরে বইয়ের চেয়ে উত্তম সঙ্গী নেই বললেই চলে । পাঠকের চাহিদায় সারাদেশে গড়ে উঠেছে অসংখ্য প্রকাশনী লাইব্রেরী । বাংলাদেশে অনেক উন্নতমানের বইও অনেক কম দামে পাওয়া যায় । আছে সহজে পাওয়া উপায় । বেশীর ভাগ প্রকাশনী বই কেনা যায় সরাসরি ডাকের মাধ্যমে । বেশী বই হলে কুরিয়ার কিংবা ট্রান্সপোর্টেও বই পৌছে যায় দেশ ব্যাপী ।

ইকমার্সের প্রসারে বইয়ের জগতে পেয়েছে নতুন প্রান । একাধিক সাইট মাল্টি ক্যাটাগরী তৈরি করেছে এবং একটি ক্যাটাগরী শুধু বইয়ের জন্যই নিদ্রিষ্ট করছে । এছাড়াও শুধু বই কেনার ওয়েবসাইট ও খুব কম নয় । প্রায় ১০ এর অধিক বই ভিত্তিক ইকমার্স সেবা দিচ্ছে । বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান বিভিন্ন আঙ্গিকে নিজেদের ঢেলে সাজিয়ে পাঠকদের ঘরে ঘরে বই পৌছে দিচ্ছে ।

তেমনি একটি ইকমার্স প্রতিষ্ঠান আমাদের বই ডট কম ( www.amaderboi.com ) । আমাদের বই ডট কম দিচ্ছে অন্যান্য সাইট থেকে কিছুটা বাড়তি সুযোগ সুবিধা । যেকোন পরিমান বই পাঠকের হাতে পৌছানোর জন্য মাত্র ৩০ টাকা খরচ নিচ্ছে তারা । তাছাড়া মাত্র ১-৩ দিনের ভিতরে সারাদেশের যেকোন স্থানে বই পৌছিয়ে দিচ্ছে আমাদের বই ডট কম । ইসলামিক, গল্প, উপন্যাস, সায়েন্স ফিকশন,প্রবন্ধ, কবিতা থেকে শুরু করে সকল ক্যাটাগরির বই পাওয়া যাবে তাদের সাইটে । ওয়েব সাইট ছাড়াও আমাদেরবই ডট কমের আছে ফেসবুক পেজ । www.facebook.com/amaderboi  এই পেজের মাধ্যমেও দেওয়া যায় যেকোন বইয়ের অর্ডার । অনলাইন থেকে দূরে থাকা ব্যাক্তিদের জন্য আছে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে বই কেনার সুযোগ । 01954 014 720 নাম্বারে ফোন করে অর্ডার করা যাবে দিনের ২৪ ঘন্টার যেকোন সময় । এমনকি শুক্রবারেও । ঢাকার মধ্যে নিজস্ব ডেলিভারী চেইন এবং বাহিরে কুরিয়ারের মাধ্যমে বই পৌছে দেয় আমাদেরবই ডট

কম । আমাদের বই ডট কম নিয়ে কথা হয় প্রতিষ্ঠানটি চালুর সময় থেকে সঙ্গে থাকা সেলস এবং মার্কেটিং ম্যানাজার মুসা বিন মোস্তফার সাথে ।  তিনি জানান দুঃখ , আক্ষেপ ও আশার কথা । জানান, বাংলাদেশে পাঠক সংখ্যা কমছে দিনের পর দিন । প্রযুক্তির অভিশাপে সন্ধ্যার পরে বই পড়ার নিয়মটি চেঞ্জ হয়ে এখন চালু হয়েছে টিভি দেখার নিয়ম । পাঠক আড্ডা গুলো বিলুপ্তির পথে প্রায় , তার স্থলে চালু হচ্ছে অশ্লীল আড্ডা । আর হার্ডকপির চেয়ে বেড়েছে পিডিএফের কদর । যেকোন একটা বই নিয়ে কাউকে কিছু বলা মাত্রই প্রথম বাক্যই থাকে পিডিএফ লিংক দিন । ক্রেতা কমে যাওয়াও প্রকাশকেরা নতুন নতুন বই আনতে অনাগ্রহ প্রকাশ করছে । মেলাতে স্টল পাওয়ার নিয়মের জন্য বাধ্য হয়ে আনতে হচ্ছে নতুন বই কিন্তু তা লাভজনক হচ্ছে না । আর অনলাইন থেকে বই কেনার ক্রেতা অবশ্য দিন দিন বাড়ছে , তাতে আমাদের কাছে মনে হতে পারে পাঠক বাড়ছে । কিন্তু আসলে তা নয় , নিকটস্থ লাইব্রেরীতে না পাওয়ার কারনে সেই পাঠক গুলো অনলাইন থেকে কিনছে । উদ্দ্যেগ বাড়ছে,  বই বাড়ছে , প্রকাশনী বাড়ছে কিন্তু সেই অনুপাতে পাঠক বাড়ছে না বরং কমছে ।

শুধু হতাশা নয় তিনি জানান আশার কথাও । তরুন সমাজকে যদি ভালো মানের বইয়ের লোভ ধরানো যায় তাহলে আবারো বেড়ে যাবে পাঠকের সংখ্যা । রাত জেগে হিন্দি গান শোনার বদলে রাত জেগে পড়বে বই ।

আমরাই চাই বই পাঠকের সংখ্যা বেড়ে যাক । প্রযুক্তির অভিশাপ থেকে তরুন সমাজ ফিরে আসুক এবং গ্রহন করুক নির্মল বিনোদন। সাথে অফুরান্ত জ্ঞান ।

Facebook Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Open