Breaking News
Home / খেলাধুলা / শরীরের লোম দাঁড়িয়ে যাওয়ার মতো তথ্য জানা গেলো মাশরাফির মুখে

শরীরের লোম দাঁড়িয়ে যাওয়ার মতো তথ্য জানা গেলো মাশরাফির মুখে

তিনটি একদিনের সিরিজের প্রথম ওয়ানডে ম্যাচে সফরকারী বাংলাদেশ স্বাগতিক নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে হেরেছে ৭৭ রানে। সিরিজ জিততে কিংবা সিরিজে টিকে থাকতে হলে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে জয়ের বিকল্প নেই টাইগারদের। বাকি দুই ম্যাচ তাই টাইগারদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ।এদিকে প্রায় আড়াই বছর পর দেশের বাহিরে খেলতে গেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। মাশরাফি-সাকিব-তামিমরা বর্তমানে রেইজেস লাটিমার হোটেলে থাকছেন।

আর হোটেলটি নিয়ে কিছুটা ক্ষোভ রয়েছে ক্রিকেটারদের মনে! কারণ এ হোটেলে রয়েছে ভংঙ্কর কিছু! ভূত! রেইজেস লাটিমারের সামনে দাঁড়িয়েই মাশরাফি বিন মুর্তজা এ হোটেল সম্পর্কে যে তথ্যটা জানালেন, সেটা শুনে শরীরের লোম দাঁড়ি যাওয়ার মতো।

রাতে ডিনার শেষ করে হোটেলের লবিতে মাশরাফির সাথে কয়েকজন গল্প করছিলেন। সেখানেই তিনি সবাইকে সতর্ক করে দেন। মাশরাফি বলেন, ‘ভাই, সাবধানে থাইকেন। এখানে কিন্তু ভূত আছে! এই হোটেলে আমরা কেউ একা ঘুমাই না। আমি, তামিম আর তাসকিন এক সঙ্গে ঘুমাই। হোটেলের দিকে যে রাস্তাটা এসেছে, সেটা দেখছেন? কী রকম ভাঙা ভাঙা পথ, পাথরের টুকরো পড়ে আছে…।’ পাশে দাঁড়ানো নুরুল হাসানের চেহারায় আতঙ্ক, ‘আমরাও কেউ একা ঘুমাই না। দল বেঁধে ঘুমাই।’

আশপাশে তখন বাংলাদেশ দলের প্রায় সব খেলোয়াড় এবং দেখে মনে হলো না তাঁদের কারও মধ্যেই এই গল্পে অবিশ্বাস আছে। ভূত বিষয়ে মাশরাফি-তামিমের আগ্রহ নিয়ে রসিকতা করে মুশফিকই যা একটু বিষয়টা থেকে বের হয়ে আসতে চাইলেন। কিন্তু মাশরাফি বের হতে দিলে তো! রেইজেস লাটিমারে ভূতের অস্তিত্বের ইতিহাস টেনে আনলেন অধিনায়ক। ‘বিশ্বকাপের সময় এখানেই ভূতের লাথি খেয়ে পাকিস্তানের খেলোয়াড় হারিস সোহেলের ১০৪ ডিগ্রি জ্বর উঠে গিয়েছিল। ঘুমের মধ্যে লাথি খেয়ে খাট থেকে পড়ে যায়, সঙ্গে সঙ্গে সেই রকম জ্বর। ওর তো পাগল হয়ে যাওয়ার মতো অবস্থা।’

২০১৫-এর বিশ্বকাপের ওই ঘটনার খবর ছাপা হয়েছিল নিউজিল্যান্ড হেরাল্ড পত্রিকায়ও। ভূতে বিশ্বাস না থাকলেও মাশরাফির কথাকে তাই উড়িয়ে দেওয়া গেল না। তা ছাড়া ভূত-প্রেতের গল্প সব সময় যে রকম বাস্তবতার ছায়া অবলম্বনে হয়, এখানেও সে ব্যাপারটা আছে।

Facebook Comments