Breaking News

কেন চাকরি গেল টুইটারের সাবেক নির্বাহীর কত টাকা ক্ষতিপূরণ পাবেন

টুইটারের মালিকানা ইলন মাস্কের হাতে যেতেই চাকরি হারাতে হয়েছে সংস্থার সিইও পরাগ আগরওয়ালকে। টুইটারের মালিক হিসাবে প্রথম পদক্ষেপেই পরাগকে বরখাস্ত করার সিদ্ধান্ত নেন মাস্ক। কিন্তু চাকরি খোয়ালে কী হবে, আর্থিকভাবে বিরাট কোনও ক্ষতি হচ্ছে না পরাগের। বরং তিনি লাভবানই হচ্ছেন। কারণ চুক্তির শর্ত অনুযায়ী, ভারতীয় বংশোদ্ভূত এই প্রযুক্তিবিদকে সরানোর জন্য মোটা অঙ্কের ক্ষতিপূরণ দিতে হবে। যার পরিমাণ প্রায় ৪.২ কোটি মার্কিন ডলার।

কিন্তু চাকরি গিয়েও কী করে এত টাকা পাচ্ছেন পরাগ? টুইটারের সঙ্গে পরাগের চুক্তি অনুযায়ী, মালিকানা বদলের এক বছরের মধ্যে যদি তাকে বরখাস্ত করে দেয়া হয়, তাহলে বিপুল পরিমাণ ক্ষতিপূরণ দিতে হবে। চুক্তি অনুযায়ী, এই ক্ষতিপূরণের পরিমাণ বাংলাদেশী মুদ্রায় প্রায় ৪৪৫ কোটি টাকা। প্রসঙ্গত, ২০২১ সালে পরাগের এই ক্ষতিপূরণের পরিমাণ ছিল ৩ কোটি মার্কিন ডলার। একবছরে বেশ খানিকটা বেড়ে গিয়েছে পরাগ আগরওয়ালের ক্ষতিপূরণের পরিমাণ।

ভারতীয় বংশোদ্ভূত পরাগ আইআইটি বম্বের সাবেক ছাত্র। সেই সঙ্গে ঐতিহ্যশালী স্ট্যানফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়েও পড়াশোনা করেছেন তিনি। চলতি বছরের এপ্রিল মাসে টুইটার কেনার ইচ্ছা প্রকাশ করেন ধনকুবের ইলন মাস্ক। তখনই পরাগের বিরুদ্ধে বিস্ফোরক অভিযোগ আনেন টেসলা প্রধান। টুইটারে ভুয়ো অ্যাকাউন্টের বিষয়ে তাকে ভুল তথ্য দিয়েছেন পরাগ, এমনই দাবি করেছিলেন মাস্ক। তখনই পরিষ্কার হয়ে যায়, টুইটারের মালিকানা মাস্কের হাতে গেলেই চাকরি যাবে পরাগের।

দীর্ঘ টালবাহানার পরে বৃহস্পতিবার অবশেষে টুইটার কিনে ফেলেন এলন মাস্ক। তারপরেই পরাগ-সহ বেশ কয়েকজনকে ছেঁটে ফেলেন তিনি। বিজয়া গাড্ডে ছাড়াও টুইটারের শীর্ষস্থানীয় দু’জন কর্তাকে সরিয়ে দেন মাস্ক। শুধুমাত্র উচ্চপদস্থ আধিকারিক নয়, প্রচুর সংখ্যায় সাধারণ কর্মীকেও ছাঁটাই করে দেয়া হবে বলে জানা গিয়েছে। টুইটার কিনতে গিয়ে প্রচুর পরিমাণে ঋণ নিতে হয়েছে মাস্ককে। তাই মাইনে দেয়ার ভয়েই কর্মী ছাঁটাইয়ের পথে হাঁটছেন টুইটারের নয়া মালিক। সূত্র: রয়টার্স।

Check Also

জিয়াউর রহমান, খালেদা জিয়া এবং তারেক রহমান তারা সবাই খুনি : শেখ হাসিনা

আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, জিয়াউর রহমান, খালেদা জিয়া এবং তারেক রহমান—তারা …

Leave a Reply

Your email address will not be published.