পশুপাখি কি কবরের আজাব বুঝতে পারে?

5
স্টাফ রিপোর্টারঃচিকিৎসার জন্য সিঙ্গাপুরে দুই মাস এগারো দিন অবস্থান শেষে বুধবার (১৬ মে) দেশে ফিরে আসা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানিয়েছে ১৪ দল। আওয়ামী লীগ প্রেসিডিয়াম সদস্য, ১৪ দলের মুখপাত্র ও খাদ্য মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি মোহাম্মদ নাসিমের নেতৃত্বে জোট নেতারা শুক্রবার (১৭ মে) রাতে ওবায়দ

নামাজ, রোজা, হজ, জাকাত, পরিবার, সমাজসহ জীবনঘনিষ্ঠ ইসলামবিষয়ক প্রশ্নোত্তর অনুষ্ঠান ‘আপনার জিজ্ঞাসা’। জয়নুল আবেদীন আজাদের উপস্থাপনায় এনটিভির জনপ্রিয় এ অনুষ্ঠানে দর্শকদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন বিশিষ্ট আলেম  ড. মুহাম্মদ সাইফুল্লাহ।
আপনার জিজ্ঞাসার ১৯২৯তম পর্বে মানুষের কবরের আজাব পশুপাখিরা বুঝতে পারে কি না, সে সম্পর্কে ঢাকা থেকে ইমেইলে জানতে চেয়েছেন পাভেল। অনুলিখনে ছিলেন জহুরা সুলতানা।প্রশ্ন : মানুষ মারা যাওয়ার পর কবরে যে আজাব হবে, তা কোনো মানুষ বুঝতে পারে না। তবে পশু-পাখিরা নাকি বুঝতে পারে। এ কথা কতটুকু সত্য?

উত্তর : হ্যাঁ, কথাটি সত্য। মানুষ অনেক কিছু বুঝতে না পারলেও কিছু কিছু মাখলুকাতকে আল্লাহতায়ালা কিছু জিনিস বুঝতে দেন। মাখলুকাতের মধ্যে কেউ কেউ বুঝতে পারে মর্মে বর্ণনা পাওয়া গেছে। কবরে আজাবের বিষয়গুলো পশুজগত অনেকটা বুঝতে পারে। তবে সেই বুঝটা কোন ধরনের বুঝ, সে সম্পর্কে হাদিসে কোনো সুস্পষ্ট নির্দেশনা নেই।

তারা কি বুঝতে পারে, এটা আল্লাহ সুবহানাহুতায়ালাই সবচেয়ে ভালো জানেন। এ বিষয়টি আমাদের বুঝতে দেওয়া হয়নি। কারণ কবরের আজাব যদি মানুষ সত্যিকারভাবে বুঝতে পারত, তাহলে মানুষের দুনিয়াবি জীবন সম্পূর্ণ বিপন্ন হয়ে যেত, বিষণ্ণ হয়ে যেত। মানুষ এত বেশি চিন্তায় পড়ে যেত যে, তার জীবনযাত্রা অচল হয়ে যেত। এ জন্যই হয়তো আল্লাহ সুবহানাহুতায়ালা মানুষের কাছ থেকে এই ক্ষমতা উঠিয়ে নিয়েছেন।
যেমন, আমরা গুনাহ করলেও গুনাহের ভার কী, এর আকার কী, তার কিছুই আমরা বুঝতে পারি না। কিন্তু সেগুলো তো আমরা বহন করে যাচ্ছি। অনুরূপভাবে কবরের আজাবটাও একই পর্যায়ের। আল্লাহ সুবহানাহুতায়ালা মেহেরবানি করেছেন। তাঁর বান্দারা পার্থিব জীবনটা যাতে করে যাপন করতে পারে, এই জীবনটা যাতে সম্পূর্ণরূপে বিধ্বস্ত না হয়, এ জন্য মেহেরবানি করেছেন, অনুগ্রহ করেছেন যে আল্লাহ সুবহানাহুতায়ালা এটাকে গোপন করে দিয়েছেন।

কিন্তু আল্লাহ মাখলুকাতের মধ্যে কাউকে কাউকে এর কিছু রূপ উপলব্ধি করার ক্ষমতা দিয়েছেন। যতটুকু ক্ষমতা দিয়েছেন, এটা তারাই বুঝতে পারে। তবে এ কথা স্পষ্টভাবে হাদিসের মধ্যে আসেনি যে, তারা আসলে কী বুঝতে পারে। হয়তো কোথাও কোথাও কোনো কবরের আজাবের বিষয়ে তারা বুঝতে পারে। সবটাও বুঝতে পারে কি না, তা হাদিসের মধ্যে স্পষ্টভাবে পাওয়া যায়নি।