জেরুজালেমে দূতাবাস স্থানান্তর করবে না কানাডা

12

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প জেরুজালেমকে ইসরায়েলের রাজধানী স্বীকৃতি দিলেও কানাডা জানিয়েছে তেল আবিব থেকে দূতাবাস সরাবে না দেশটি। চীন সফরে থাকা কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো এই তথ্য জানিয়েছেন।কানাডায় সম্প্রচারিত এক ভাষণে কানাডীয় প্রধানমন্ত্রী বলেন, কানাডার দূতাবাসকে আমরা তেল আবিব থেকে সরাবো না।কানাডার পররাষ্ট্রমন্ত্রী ক্রিস্টিয়া ফ্রিল্যান্ডও নিশ্চয়তা দিয়ে বলেছেন, তারা জেরুজালেম নিয়ে বিরোধ আলোচনার মাধ্যমেই সমাধানের নীতিতে বিশ্বাসী।ট্রাম্পের এই সিদ্ধান্তকে শুধু ইসরায়েল স্বাগত জানিয়েছে। কিন্তু বিশ্বের রাষ্ট্রনেতারা সমালোচনা করেছেন।এর আগে ইউরোপীয় ইউনিয়ন জানিয়েছে তারাও জেরুজালেমে দূতাবাস স্থানান্তর করবে না।

 ইসরায়েলে নিযুক্ত ইউরোপীয় ইউনিয়নের দূত ইমানুয়েল গিয়াউফ্রেট বলেন, আমাদের দূতাবাস তেল আবিবেই বহাল থাকবে। ইউরোপীয় ইউনিয়ন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের দৃষ্টান্ত অনুসরণ করে জেরুজালেমে দূতাবাস স্থানান্তর করবে না।ইমানুয়েল গিয়াউফ্রেট বলেন, এ ব্যাপারে জাতিসংঘের একটি প্রস্তাব রয়েছে। জেরুজালেমের বিষয়ে অবশ্যই ইসরায়েল ও ফিলিস্তিনের মধ্যে আলোচনা হতে হবে। এই আলোচনার আগেই এ ব্যাপারে নতুন অবস্থান নেওয়া  ইউরোপীয় ইউনিয়নের জন্য ভালো কিছু নয়।উল্লেখ্য, জেরুজালেমকে নিজেদের ভবিষ্যত রাষ্ট্রের রাজধানী হিসেবে চায় ফিলিস্তিন। আর আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ও শহরটিকে ইসরায়েলের অংশ হিসেবে মেনে নেয়নি। সূত্র: টাইমস অব ইসরায়েল।