“ভোটারদের কেন্দ্রে যাওয়ার অনীহা রাষ্ট্র তৈরি করছে”

“ভোটারদের কেন্দ্রে যাওয়ার অনীহা রাষ্ট্র তৈরি করছে”

স্টাফ রিপোর্টার: আওয়ামী লীগ গত ১১ বছর নির্বাচনকে প্রশ্ন বিদ্ধ করেছে বলে অভিযোগ করে ঢাকা ১০ আসনের উপনির্বাচনের বিএনপি প্রার্থী শেখ রবিউল আলম রবি বলেছেন ভোটাররা নির্বাচন থেকে মুখ ফিরিয়ে নিয়েছে। রাজনৈতিক দল গুলো লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড পায় না। বিএনপি নির্বাচন ব্যবস্থার সংস্কারণ চায় সরকারের অপসারন চায় না। আজকে নির্বাচন কমিশনার বিতর্কিত হয়েছে। বিতর্কিত নির্বাচন করে ইসি প্রশ্ন বিদ্ধ হয়েছে এর দায় সরকারের।

তিনি বলেন, আমরা বললেই যদি পৃথিবীর সব লোকে মনে করে বিতর্কিত নির্বাচন হয়েছে। ৭৫ ভাগ লোকে নির্বাচন বর্জন করে তাহলে আমাদের দাবিই সঠিক। আওয়ামী লীগ দোশারোপের রাজনীতি করে। তারা রাজনৈতিক ভাবে দেউলিয়া হয়ে গেছে। বিএনপি প্রার্থী নির্বাচন করতে এবং যেতে ভয় না না।মঙ্গলবার (৩ মার্চ) দুপুরে হাতির পুল এলাকায় গণসংযোগের সময় তিনি এসব কথা বলেন।

ভোটারদের কেন্দ্রে নিয়ে যাওয়ার কি কি পদক্ষেপ নিবেন এমন প্রশ্নের জবাবে ধানের শীষের প্রার্থী রবি বলেন, আমরা রাজনৈতিক দল এবং প্রার্থী হিসেবে চেষ্টা করছি। ভোটারদের কেন্দ্রে যাওয়ার অনীহা রাষ্ট্র তৈরি করছে। নির্বাচনী ব্যবস্থা প্রশ্নবিদ্ধ বিধায় ভোটরদের নিরাপত্তা নিয়ে শংকিত। তারা মনে করে ফলাফল আগেই নির্ধারত বা আমি যে প্রার্থীকে ভোট দিবো তাকে ভোট দেওয়া যাবে না। জোড় করে অন্য প্রার্থীকে দিতে বাধ্য করা হবে। এ সব আতঙ্কের মধ্যে রয়েছে। এই কারনে গত ১১ বছর সরকার তাই প্রতিষ্ঠিত করেছে। তবে আমি এই ধারনা দূর করতে চাচ্ছি এই রাষ্ট্রের মালিক আপনারা।

ভোটারেরা যাতে নির্বিগ্নে ভোট দিতে পারে সে চেষ্টা করবো।তিনি বলেন, প্রার্থীরা ও নির্বাচন কমিশনারেরা সমঝোতার ভিত্তিতে প্রচার প্রচারনার ক্ষেত্রে কিছু সংস্কার করেছিলাম। ইসি উদ্যেগ নিয়েছিল আমরা কারেকশন দিয়েছিলাম।তিনি বলেন, প্রচার প্রচারণায় মানুষ নিয়ে নামতে বাধা নেই। আমিও নামছি, আমিও প্রচুর মানুষ নিয়ে নামবো। একটা বাধা নিষেধ আছে সেটা হলো ৫ দিন ব্যাসিক আকারে করা যাবে। বাকী দিনগুলো নিয়ন্ত্রিত করতে হবে যাতে যানজটের সৃষ্টি না হয়। মানুষের চলাচলে বিগ্ন না ঘটে। ভোটারদের কাছে যাওয়া যাবে।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.

© All rights reserved © 2017 RTNBD.net