হিজাব পরা ছবি ব্যবহারের অনুরোধ জানালেন অভিনেত্রী অ্যানি খান

BPL 2023 লাইভ দেখুন এই লিংকে  rtnbd.net/live

একসময়ের আলোচিত অভিনেত্রী অ্যানি খান গত বছরের জুনে অভিনয় জগত থেকে নিজেকে গুটিয়ে নেওয়ার সিদ্ধান্ত নেন। ধর্মীয় রীতিনীতিতে জীবন ধারণের পরিকল্পনা থেকেই তার অভিনয় থেকে সরে যাওয়া।

এরপর থেকেই অভিনয় জগতে তাকে আর দেখা যায়নি। ধর্মীয় রীতিতে পোশাকেও তার পরিবর্তন লক্ষণীয়। বোরকা ও হিজাব পরেই ছবি তুলেন তিনি। এরপরই অ্যানি খান ব্যবসার প্রতি আগ্রহী হয়ে ওঠেন। অনলাইনেই পরিচালিত হচ্ছে তার ব্যবসার কার্যক্রম।বর্তমানে তিনি একজন সফল উদ্যোক্তা।

শুধু সফল ব্যবসায়ীই নন, ধর্ম-কর্ম নিয়েও সোশ্যাল মিডিয়ায় তিনি বেশ সক্রিয়। ফলে এক সময়ের সফল এই অভিনেত্রী মাঝে-মধ্যেই খবরের শিরোনাম হন।

অ্যানি খানের সাম্প্রতিক অনলাইন ব্যবসা নিয়ে গত কিছুদিন আগে কয়েকটি গণমাধ্যমে খবর প্রকাশ হয়। এসব প্রতিবেদনে তার অভিনয় জীবনের ছবি ব্যবহার করা হয়। সেইসব ছবি নিয়ে তিনি ঘোর আপত্তি জানিয়েছেন।

অ্যানি খানের বক্তব্য অনুযায়ী, অভিনয় জগৎ ছেড়ে ইসলামের বিধান অনুযায়ী তিনি জীবনযাপন করছেন। তাকে নিয়ে খবর প্রকাশ করলে গণমাধ্যমর্কীরা যেন তার বর্তমান সময়ের হিজাব পরা ছবি ব্যবহার করেন। এতেই তিনি উপকৃত হবেন।

এ ইস্যুতে সাংবাদিকদের অনুরোধ জানিয়ে গতকাল রবিবার রাতে নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে একটি স্ট্যাটাস দেন অ্যানি খান।

পাঠকদের জন্য সেই স্ট্যাটাসটি তুলে ধরা হলো– ‘আলহামদুলিল্লাহ, সংশ্লিষ্ট সব পত্রিকা ও সাংবাদিক ভাইদের ধন্যবাদ জানাচ্ছি। বাকি নিউজগুলো এখানে (ফেসবুক) দিতে পারলাম না। আমি খুব খুশি হব, পরবর্তীতে আপনারা নিউজ করলে অবশ্যই আমার এখনকার ছবিগুলো ব্যবহার করলে।’

‘ইসলামিক দেশ হিসেবে নিউজ পেপারে মেয়েদের হিজাব বোরকা পরা ছবি যেতেই পারে, অনেকেই আছেন বোরকা বা হিজাব পরা ছবিগুলো পত্রিকায় ব্যবহার করতে চান না। এর বিশেষ কোনো কারণ আছে কিনা আমার জানা নেই।’

‘তবে আমি ভীষণভাবে উপকৃত হব- পরবর্তীতে আমার আগের ছবিগুলো ব্যবহার করে নিউজ না করলে। জাজাকাল্লাহু খাইরান সবাইকে। আশা করি নেগেটিভ মন্তব্য থেকে বিরত থাকবেন- এটা বলছি আমার পেজে যারা আছেন তাদেরকে।’

Check Also

বিবাহিত পুরুষরা মেসেজ দিলে বউদের স্ত্রিনশট পাঠাব : সুবহা

ঢাকাই সিনেমার নবাগত চিত্রনায়িকা হুমায়রা সুবহা। সোশ্যাল মিডিয়ায় বেশ সরব তিনি। বিভিন্ন ইস্যুতে খোলামেলা কথা …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *