বর্জনের আহ্বানের মধ্যেই সৌদিতে আমদানি বেড়েছে তুর্কি পণ্যের!

234

সৌদি চেম্বার অব কমার্সের চেয়ারম্যান আজলান আল আজলান কর্তৃক সে দেশের নাগরিকদের প্রতি সকল প্রকারের তুর্কি পণ্য বর্জনের ঘোষণার মধ্যেই দেখা যায় দেশটিতে আগের তুলনায় বেড়েছে তুর্কি পণ্য আমদানির পরিমাণ। সম্প্রতি সৌদির পরিসংখ্যান বিভাগ কর্তৃক প্রকাশিত তথ্যে এমনটা দেখা যায়। খবর তুর্কি গণমাধ্যম ইয়েনি শাফাক’র।

সৌদি পরিসংখ্যান বিভাগ কর্তৃক সেই তথ্যে দেখা যায় দেশটিতে আগের তুলনায় ২২০ মিলিয়ন ডলারের বেশি তুর্কি পণ্য আমদানি হয়ে থাকে।

রোববার প্রকাশিত ওই তথ্যে দেখা যায়, বিগত মাসগুলোর তুলনায় গত আগস্টে এ আমদানির পরিমাণ আরও বৃদ্ধি পেয়েছে। সেখানে দেখা যায়, জুলাই মাসে সৌদিতে তুর্কি পন্য আমদানি করা হয়েছে ৬৯৩.৪ মিলিয়ন ডলারের আর আগস্টে সেখানে ৮৩৩.৬ মিলিয়ন ডলারের পন্য আমদানি করা হয়েছে। যা দেশটিতে নবম বৃহত্তম রপ্তানীকারক হিসেবে তুরস্কের অবস্থান করে দিয়েছে।

গেল অক্টোবরে দেশটির চেম্বার অব কমার্স চেয়ারম্যান আজলান আল আজলান তার নাগরিকদের প্রতি সকল প্রকার তুর্কি পন্য বর্জনের আহ্বান জানান। সেইসাথে দেশটির সকল সুপার শপ চেইনকে তুর্কি পন্য পরিহার করতেও আহ্বান জানান। আজলান আল আজলান বলেন, তুরস্ক থেকে কোনও প্রকারের আমদানি, তুর্কি বিনিয়োগ ও পর্যটন বয়কট করা প্রতিটি সৌদি নাগরিকের প্রতি কর্তব্য।

সাম্প্রতিক সময়ে মধ্যপ্রাচ্য ইস্যুতে তুরস্ক ও সৌদি আরবের মধ্যে বিবাদ রয়েছে। এর কারণ হিসেবে সৌদির ইসরায়েল ঘনিষ্ঠতা ও ইরান ও হামাস বিরোধীতা এই বিবাদকে আরও উস্কে দিচ্ছে।