পুলিশের চাকরি পেয়েও যে কারণে যোগদান করতে পারলেন না রিদয়

IPL ের সকল খেলা  লাইভ দেখু'ন এই লিংকে  rtnbd.net/live

ঢাকার ধামরাইয়ে তথ্য গোপন করে চাকরি নেওয়ার খেসারত দিতে হলো এক তরুণকে। পুলিশের কনস্টেবল পদে চাকরি পাওয়ার পরও যোগদান করতে পারলেন না ঢাকার ধামরাইয়ের রিদয়। ধামরাই উপজেলার গাঙ্গুটিয়া ইউনিয়নের অর্জুননালাই গ্রামের মোঃ রফিকুল ইসলামের ছেলে রিদয়। মা সংরক্ষিত ওয়ার্ডের সাবেক মহিলা সদস্য কোহিনুর বেগম। তার স্ত্রীর নাম সোহানা আক্তার পলি। তিনি মানিকগঞ্জ জেলার সাটুরিয়া উপজেলার ধানকোড়া ইউনিয়নের দক্ষিণ খল্লী গ্রামের মো. আমোয়ার হোসেন আয়নালের মেয়ে। রিদয় বিবাহিত ও তার বিরুদ্ধে আদালতে যৌতুক ও নারী নির্যাতন দমন আইনে মামলা রয়েছে। এসব তথ্য গোপন করে চাকরি নিয়েছিলেন পুলিশ কনস্টেবল পদে। তবে চাকরির পর সব ফাঁস হয়ে যাওয়ায় কাল হল তার। ২ মে পুলিশের প্রশিক্ষণ শিবিরে যোগদানের জন্য ৩০ এপ্রিল ধামরাই থানা থেকে যোগদানের চিঠি আনতে গিয়ে তিনি জানতে পারেন- উল্লেখিত কারণে তার যোগদান হচ্ছে না। সাংবাদিক, পুলিশের এসবি ও ডিএসবির তদন্ত ও যাচাই বাছাই এবং এলাকাবাসীর দেওয়া তথ্যানুসারে বিষয়টি নিশ্চিত হয়েছে। সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, রিদয় সেনাবাহিনীতে চাকরি করা অবস্থায় মোটা অংকের যৌতুকের দাবিতে তার স্ত্রীর ওপর নির্যাতন চালায়। এ ব্যাপারে তার বিরুদ্ধে তার স্ত্রী অভিযোগ করলে বছর খানেক আগে তাকে চাকরিচ্যুত করা হয় সেনাবাহিনী থেকে। তার বিরুদ্ধে স্ত্রী আদালতে মামলাও করেছেন; যা চলমান রয়েছে। এ ব্যাপারে রিদয় বলেন, সেনাবাহিনী থেকে চাকরিচ্যুত হয়ে অভিশপ্ত বেকার জীবনের ঘানি টানছি। বেকার জীবন খুবই হতাশার। তাই হতাশা কাটাতে ও বেকারত্বের অভিশাপ ঘুচাতে তথ্য গোপন করে পুলিশে চাকরি নেই। এ ব্যাপারে ধামরাই থানার ওসি (অপারেশন) নির্মল দাস বলেন, কোনো বিবাহিত কিংবা মামলার আসামি পুলিশ বাহিনীতে চাকরি পাওয়ার কোনো যোগ্যতা রাখে না। তাই তাকে যোগদানের চিঠি দেওয়া হয়নি। awesome)

Check Also

রাশিয়ার ওপর আরও নিষেধাজ্ঞা দিচ্ছে জি৭, লক্ষ্য জ্বালানি ও বাণিজ্য

রাশিয়ার ওপর বিভিন্ন সময় নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে ধনী দেশগুলোর জোট জি৭, তবে দেশটি নানাভাবে তা …