জেলগেট থেকে ফের গ্রেফতার স্বেচ্ছাসেবক দল নেতা মোসাব্বির

IPL ের সকল খেলা  লাইভ দেখু'ন এই লিংকে  rtnbd.net/live

জামিন পেয়েও মুক্তি মেলেনি ঢাকা মহানগর উত্তর স্বেচ্ছাসেবক দলের সাধারণ সম্পাদক আজিজুর রহমান মুসাব্বিরের। সোমবার কেরানীগঞ্জের কেন্দ্রীয় কারাগারের গেট থেকে তাকে আবারও গ্ৰেফতার করে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। এই নিয়ে ৩ বার জেলগেট থেকে তাকে গ্ৰেফতার করা হলো। মুসাব্বিরের স্ত্রী সুরাইয়া বেগম বলেন, ৮ ডিসেম্বর মোসাব্বিরকে আটক করে ৫ দিন নিখোঁজ রাখা হয়। পরে আদালতে হাজির করে পুলিশ। প্রায় দেড় মাস পর তিনি সব মামলায় জামিনলাভ করেন এবং ২ ফেব্রুয়ারি জেলগেট থেকে মতিঝিল থানায় একটি পুরনো মামলায় সন্দেহভাজন হিসেবে তাকে পুলিশ আটক করে। পরে উচ্চ আদালত থেকে সব মামলায় জামিন লাভ করার পর গত ১১ এপ্রিল জেলগেট থেকে তাকে আবারও শেরে বাংলা নগর থানায় একটি পুরানো মামলায় সন্দেহজনক হিসেবে গ্ৰেফতার করে। তিনি জানান, গতকাল রোববার সেই মামলা থেকেও তিনি জামিন লাভ করেন। সোমবার তিনি মুক্তি লাভ করার সময়ে জেলগেট থেকে তাকে আবারও গ্রেফতার করা হয়। মুক্তি পাওয়ার পরও তার মুক্তি মিলছে না। তার শিশু সন্তানসহ পরিবারের সব সদস্যরাই মোসাব্বিরের অনুপস্থিতি এবং তাকে বারবার হয়রানি করায় ভেঙে পড়ছেন। মোসাব্বিরের আইনজীবী অ্যাডভোকেট দেলোয়ার জাহান রুমি জানান, মোসাব্বিরের সব মামলায় জামিন হওয়ায় তার মুক্তিতে কোনো বাধা ছিল না। কিন্তু যেভাবে একের পর এক পুরানো মামলায় সন্দেহজনকভাবে জেলগেট থেকে তাকে আটক করা হচ্ছে তাতে মোসাব্বিরের আইনের অধিকার, মানবাধিকার খর্ব হচ্ছে। তিনি বলেন, ঈদের ছুটি, ভ্যাকেশন, মে দিবস উপলক্ষ্যে উচ্চ আদালত বন্ধ থাকায় নো অ্যারেস্ট, নো হ্যারেস আদেশ তাদের পক্ষে নেওয়া সম্ভব হয়নি। তবে তারা এবার আস্থাশীল ছিলেন। কিন্তু এবারও আইনের ব্যত্যয় ঘটিয়ে মোসাব্বিরের মুক্তির পথে বাধা দেওয়া হলো। স্বেচ্ছাসেবক দলের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক রাজীব আহসান বলেন, এই সরকারের আজ্ঞাবহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনী কোনো আইনের তোয়াক্কা না করে, নিয়মের তোয়াক্কা না করে, মানবাধিকার রক্ষা না করে মোসাব্বিরের ওপর নির্যাতন করছে। এই অত্যাচারের শেষ হবেই, ইনশাআল্লাহ। amazing)

Check Also

রাশিয়ার ওপর আরও নিষেধাজ্ঞা দিচ্ছে জি৭, লক্ষ্য জ্বালানি ও বাণিজ্য

রাশিয়ার ওপর বিভিন্ন সময় নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে ধনী দেশগুলোর জোট জি৭, তবে দেশটি নানাভাবে তা …