এএসআইয়ের টাকা দাবির কলরেকর্ড ফাঁস

IPL ের সকল খেলা  লাইভ দেখু'ন এই লিংকে  rtnbd.net/live

নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ উপজেলায় পাঁচ হাজার টাকা দাবির অভিযোগ ওঠায় এএসআই মো. ইউসুফ আলীকে ক্লোজ করে জেলা পুলিশ লাইনে যুক্ত করা হয়েছে। ৪১১ ধারায় গ্রেফতারের ভয় দেখিয়ে এক ব্যক্তির কাছ থেকে ওই টাকা চাওয়া হয়। বুধবার রাতে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (বেগমগঞ্জ সার্কেল) মো. নাজমুল হাসান রাজিব বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, এএসআই মো. ইউসুফ আলীর বিরুদ্ধে বিভিন্ন অভিযোগ ওঠায় তাকে প্রশাসনিক কারণে জেলা পুলিশ লাইনসে ক্লাজ করা হয়েছে। এ ব্যাপারে তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এর আগে এ সংক্রান্ত একটি কলরেকর্ড ফাঁস হয়েছে, যা সংরক্ষিত আছে। তবে ভুক্তভোগী ব্যক্তির নাম-ঠিকানা জানা যায়নি। জানা গেছে, কোম্পানীগঞ্জ থানায় যেকোনো মোবাইল ফোন চুরি হলে বা হারিয়ে গেলে তা উদ্ধারের দায়িত্বে ছিলেন এএসআই ইউসুফ আলী। তবে মোবাইল ফোন উদ্ধার করে বাদী-বিবাদীর কাছ থেকে মোটা অঙ্কের টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ ওঠে তার বিরুদ্ধে। এরকম টাকা দাবির একটি কলরেকর্ড এই প্রতিনিধির হাতে এসেছে। তিন মিনিট ছয় সেকেন্ডের ওই রেকর্ডে এক ব্যক্তির কাছে এএসআই ইউসুফ পাঁচ হাজার টাকা দাবি করেন। তা না দিলে ওই ব্যক্তিকে ৪১১ ধারায় গ্রেফতারের ভয় দেখান। রেকর্ডে ভুক্তভোগী ব্যক্তিকে কাকুতি-মিনতি করে বলতে শোনা যায়- আমার বাচ্চা অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি। আমি এত টাকা দিতে পারব না। তখন গ্রেফতারের ভয় দেখালে ওই ব্যক্তি দেড় হাজার টাকা দিতে রাজি হন। এএসআই ইউসুফ আলীকে বলতে শোনা যায়, কোথায় পাঁচ হাজার আর কোথায় এক হাজার ৫০০ টাকা। আপনি পেনাল কোডের ৪১১ ধারা পড়ে দেখেন; ওটাতে কী লেখা আছে। কোম্পানীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. সাদেকুর রহমান বলেন, অভিযোগ ওঠার পর অভিযুক্ত এএসআই ইউসুফ আলীকে মোবাইল ফোন উদ্ধারসহ সব কার্যক্রম থেকে বিরত রাখা হয়েছে। amazing)

Check Also

রাশিয়ার ওপর আরও নিষেধাজ্ঞা দিচ্ছে জি৭, লক্ষ্য জ্বালানি ও বাণিজ্য

রাশিয়ার ওপর বিভিন্ন সময় নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে ধনী দেশগুলোর জোট জি৭, তবে দেশটি নানাভাবে তা …