ছাত্রীর সঙ্গে আপত্তিকর কাজ, কনডম গিলে ফেলার চেষ্টা অধ্যক্ষের

ছাত্রীর সঙ্গে আপত্তিকর কাজ, কনডম গিলে ফেলার চেষ্টা অধ্যক্ষের

জামালপুরে ট্রেনে ছাত্রীর সঙ্গে আপ’ত্তিকর অবস্থায় কলেজের এক অধ্যক্ষকে আ’টক করেছে জিআরপি পুলিশ। রোববার দুপুরে আন্তঃনগর তিস্তা এক্সপ্রেস ট্রেনের একটি কেবিন থেকে ইসলামপুর জে জে কে এম গালর্স হাইস্কুল অ্যান্ড কলেজের অধ্যক্ষ আব্দুস সালাম চৌধুরীকে আপ’ত্তিকর অবস্থায় আটক করে দেওয়ানগঞ্জ জিআরপি পুলিশ ফাঁড়ি। আ’টক অধ্যক্ষ আব্দুস সালাম জামালপুর শহরের বেলটিয়া এলাকার মৃ’ত সিরাজুল হকের ছেলে।

জিআরপি পুলিশ সূত্রে জানা যায়, রবিবার ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা দেওয়ানগঞ্জগামী আন্তঃনগর তিস্তা এক্সপ্রেস ট্রেনের ঘ নাম্বার কোচের একটি কেবিন বুকিং করে কলেজের প্রাক্তন এক ছাত্রীকে (২৭) নিয়ে ভ্রমণ করছিলেন অধ্যক্ষ আব্দুস সালাম চৌধুরী (৫০)। আন্তঃনগর তিস্তা এক্সপ্রেস ট্রেনটি মেলান্দহ স্টেশন অতিক্রম করার পর মেয়েসহ ট্রেনের ওই কেবিনটি ভেতর থেকে বন্ধ থাকায় যাত্রীদের সন্দেহ হয়।

কেবিনের বাইরে থেকে ডা’কাডাকির পরও দরজা না খোলায় ট্রেনে কর্তব্যরত জিআরপি পুলিশকে বিষয়টি জানায় যাত্রীরা। পরে জিআরপি পুলিশ ওই কেবিনে গিয়ে অধ্যক্ষ আব্দুস সালাম চৌধুরীকে ওই ছাত্রীর সঙ্গে আপ’ত্তিকর অবস্থায় আ’টক করে।

এ সময় আব্দুস সালামের ব্যবহৃত ক’নড’মটি গিলে ফেলার চেষ্টা করেন। পরে পুলিশ কনস্টেবল আব্দুল মান্নান ওই অধ্যক্ষের মুখ থেকে ক’নড’মটি উ’দ্ধার করেন এবং তাদের দুজনকে আ’টক করে দেওয়ানগঞ্জ রেলওয়ে পুলিশ ফাঁড়িতে নিয়ে যান। পরবর্তীতে আট’ক দুজনকে আন্তঃনগর তিস্তা ট্রেনেই জামালপুর জিআরপি থানায় নিয়ে আসা হয়। আটক ছাত্রীর বাড়ি জামালপুরের ইসলামপুর উপজেলার পৌরসভাধীন গাওকুড়া এলাকায়।

জামালপুর রেলওয়ে থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তাপস চন্দ্র পন্ডিত ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, ট্রেনে অ’নৈতিককাজে লি’প্ত থেকে জনগণের মাঝে অ’স্বস্তিকর পরিবেশ সৃষ্টি করার অপরা’ধে তাদের বিরু’দ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.

© All rights reserved © 2017 RTNBD.net