পৃথিবীর কোন স্বৈরশাসন বিচার বিভাগকে স্বাধীন থাকতে দেয়না : আসিফ নজরুল

88

সাবেক সংসদ সদস্য এ কে এম এ আউয়াল দম্পতির জামিন ইস্যুতে পিরোজপুরের জেলা ও দায়রা জজ আব্দুল মান্নানকে প্রত্যাহারের ঘটনায় বুধবার থেকে সারাদেশে আলোচনা-সমালোচনার ঝড় বয়েই চলেছে।

এবার সেই ঘটনায় মুখ খুললেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের অধ্যাপক ড. আসিফ নজরুল। তার দেয়া স্ট্যাটাসটি পাঠকদের জন্য হুবুহু তুলে ধরা হলো-

আওয়ামী লীগকে নেতাকে দূর্নীতির মামলায় জামিন না দেয়ার পিরোজপুরের জেলা ও দায়রা জজ মো. আব্দুল মান্নানকে কয়েক ঘন্টার মধ্যে অপবাদ দিয়ে বদলি করে দেয়া হয়েছে। এর ৩০ মিনিটের মধ্যে নতুন বিচারক জামিনের ব্যবস্থা করেছেন।

এই সরকারই আবার বলে বিচার বিভাগ স্বাধীন!

শুধু শুধু এসব বলে লাভ নেই। মানুষ এতো বোকা না। মানুষের মনে আছে স্বাধীনভাবে রায় দেয়ার পর দেশের প্রধান বিচারপতিকে কি হেনস্তা করে দেশছাড়া করেছিলেন। কি অবস্থা করেছিলেন তারেক রহমানকে খালাস দেয়া বিচারকের।

মানুষের এগুলো ভুলে যাবার কথা না। খালেদা জিয়ার জামিন কেন হয় না মানুষ সেখান থেকে বুঝে নেয়।

Loading...

পৃথিবীর কোন স্বৈরশাসন বিচার বিভাগকে স্বাধীন থাকতে দেয়না।

এর আগে, মঙ্গলবার দুপুর ১২টার দিকে দুদকের দুর্নীতি মামলায় উচ্চ আদালত থেকে আট সপ্তাহের নেওয়া জামিনের শেষ দিনে পিরোজপুর জেলা ও দায়রা জজ আদালতে হাজির হয়ে জামিনের আবেদন করেন সাবেক এমপি ও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এ কে এম এ আউয়াল ও তার স্ত্রী লায়লা পারভীন। পিরোজপুর জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক মো. আবদুল মান্নান জামিন নামঞ্জুর করে তাদেরকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছিলেন। কিন্তু এই আদেশের মাত্র চার ঘণ্টা পরই জামিন পান এই দম্পতি।

ভারপ্রাপ্ত জেলা ও দায়রা জজ নাহিদ নাসরিনের আদালতে জামিন বাতিলের আদেশ পুনর্বিবেচনার জন্য আবেদন জানানো হলে শুনানি শেষে গতকালই বিকেল ৪টায় বিচারক তাদের দুই মাসের জামিন মঞ্জুর করেন। এর পরপরই বিচারক আব্দুল মান্নানকে প্রত্যাহার করা হয়।