চীনা প্রেসিডেন্টের সঙ্গে দোলনায় দুলেছিলেন মোদি: তোপ কংগ্রেসের

IPL ের সকল খেলা  লাইভ দেখু'ন এই লিংকে  rtnbd.net/live

কাশ্মিরে লাদাখে চীনা বাহিনীর হাতে ২০ ভারতীয় সেনার  মৃত্যু নিয়ে উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে ভারতের অভ্যন্তরীণ রাজনীতি। এ নিয়ে ক্ষমতাসীন বিজেপি ও বিরোধী দল কংগ্রেসের মধ্যে বাদানুবাদ চরমে পৌঁছেছে। কংগ্রেসের অভিযোগ, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি দফায় দফায় চীন সফর করেছেন। এমনকি চীনা প্রেসিডেন্টকে নিয়ে এসে দোলনায় দুলেছেন তিনি।উপগ্রহ থেকে পাওয়া ছবিতে ইতোমধ্যেই ভারতের দাবি করা ভূখণ্ডে চীনা সা’মরিক উপস্থিতির প্রমাণ মিলেছে।

কংগ্রেসের দাবি, চীন ভারতের কতটা ভূখণ্ড দখল করেছে তা স্পষ্ট করে বলুক মোদি সরকার।কংগ্রেস বলছে, ভারতের সার্বভৌমত্বের প্রশ্নে বেইজিং-এর কাছে আত্মসমর্পণ করেছেন মোদি। এর উত্তরে কংগ্রেসকেও এক হাত নিয়েছেন বিজেপি-র সর্বভারতীয় সভাপতি জে পি নাড্ডা। তিনি বলেছেন, রাজীব গান্ধী ফাউন্ডেশন চাঁদা নিয়েছে চীনের কাছ থেকে। কংগ্রেসের কী সম্পর্ক চীনের সঙ্গে, দেশবাসী জানতে চায়।ময়দান ছাড়তে রাজী নয় কংগ্রেসও। দলের মুখপাত্র, রণদীপ সুরজেওয়ালা বলেন, চিনের সঙ্গে যে সম্পর্কের কথা বিজেপি তুলেছে তা নিয়েই অন্তত ছয়টি প্রশ্ন তোলা যায় তাদের বিরুদ্ধে ।রণদীপ সুরজেওয়ালা বলেন, বিজেপির সঙ্গে চিনের কমিউনিস্ট পার্টির সম্পর্ক কী?

বর্তমান প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং নিজে ২০০৭ সালে কমিউনিস্ট পার্টির আমন্ত্রণে চীনে গিয়েছিলেন।তিনি বলেন, চীনা কমিউনিস্ট পার্টির আমন্ত্রণে ২০০৯ সালের জানুয়ারিতে কেন চীনে গিয়েছিলেন আরএসএস নেতারা? কোনও রাজনৈতিক দল না হওয়া সত্ত্বেও আরএসএস-কে কেন আমন্ত্রণ করেছিল বেইজিং? অরুণাচল প্রদেশ ও তিব্বত নিয়ে তাদের মধ্যে কী আলোচনা হয়েছিল?কংগ্রেস মুখপাত্র বলেন, ২০১১ সালের ১৯ জানুয়ারি বিজেপি নেতা নীতীন গড়করী কেন চীনের আমন্ত্রণে দেশটিতে গিয়েছিলেন?তিনি বলেন, বেইজিং-এর সঙ্গে সম্পর্কের কথা বললে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির কথাও বলতে হয়। তিনি একাধিকবার চীনে গিয়েছেন।

দেশটির প্রেসিডেন্টকে নিয়ে এসে দোলনায় দুলেছেন।রণদীপ সুরজেওয়ালা বলেন, ২০১৪ সালে বিজেপি বিধায়ক ও এমপিদের একটি প্রতিনিধি দল চীনে পাঠিয়েছিলেন বিজেপি নেতা ও বর্তমান স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ।  এক সপ্তাহ  ধরে তারা সেখানে ছিলেন। সেখানে চীনের কমিউনিস্ট পার্টি নিয়ে পড়াশোনা করেছিলেন তারা।তিনি বলেন, রাজীব গান্ধী ফাউন্ডেশন চীনের কাছ থেকে চাঁদা নিয়েছে। বিজেপি বলুক ইলেকট্রোরাল বন্ডের মাধ্যমে তারা কাদের কাছ থেকে চাঁদা নিয়েছে।

Check Also

এরদোগানবিরোধী প্রচারণায় ব্রিটিশ গণমাধ্যম ইকোনোমিস্ট

তুরস্কের প্রেসিডেন্ট ও পার্লামেন্ট নির্বাচনের ১০ দিন আগে প্রকাশিত ব্রিটিশ সাপ্তাহিক পত্রিকা ইকোনোমিস্ট কভার পেজসহ …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *