Breaking News
শূন্য হওয়া পাঁচটি সংসদীয় আসনের উপ-নির্বাচনের জন্য সপ্তম ও শেষ দিনে ১১টি দলীয় মনোনয়ন ফরম বিক্রি করেছে আওয়ামী লীগ। এ নিয়ে গত ৭ দিনে আওয়ামী লীগের মোট ১৪১টি ফরম বিক্রি হয়েছে। সেই সঙ্গে সবগুলো ফরম জমাও পড়েছে। এরমধ্যে সর্বোচ্চ মনোনয়ন প্রত্যাশী ঢাকা-১৮ আসনে আর সর্বনিম্ন মনোনয়ন প্রত্যাশী সিরাজগঞ্জ-১ আসনে। এসব আসনে মনোনয়ন ফরম বিক্রি করে দলটির ফান্ডে জমা হয়েছে ৪২ লাখ ৩০ হাজার টাকা। যে

একটি আসনেই আওয়ামী লীগের এমপি হতে চান ৫৬ জন

শূন্য হওয়া পাঁচটি সংসদীয় আসনের উপ-নির্বাচনের জন্য সপ্তম ও শেষ দিনে ১১টি দলীয় মনোনয়ন ফরম বিক্রি করেছে আওয়ামী লীগ। এ নিয়ে গত ৭ দিনে আওয়ামী লীগের মোট ১৪১টি ফরম বিক্রি হয়েছে। সেই সঙ্গে সবগুলো ফরম জমাও পড়েছে। এরমধ্যে সর্বোচ্চ মনোনয়ন প্রত্যাশী ঢাকা-১৮ আসনে আর সর্বনিম্ন মনোনয়ন প্রত্যাশী সিরাজগঞ্জ-১ আসনে। এসব আসনে মনোনয়ন ফরম বিক্রি করে দলটির ফান্ডে জমা হয়েছে ৪২ লাখ ৩০ হাজার টাকা।

যেসব আসনে উপ-নির্বাচন হবে সেগুলো হলো- নওগাঁ-৬, সিরাজগঞ্জ-১, পাবনা-৪, ঢাকা-৫ ও ঢাকা-১৮। গত সোমবার ১৭ আগস্ট সকাল ১০টা থেকে শুরু করে শূন্য হওয়া পাঁচটি সংসদীয় আসনের উপ-নির্বাচনে দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশীদের কাছে ফরম বিক্রি শুরু করে আওয়ামী লীগ। রোববার (২৩ আগস্ট) বিকেল ৫টা পর্যন্ত আওয়ামী লীগ সভাপতির ধানমণ্ডির রাজনৈতিক কার্যালয়ে দলীয় মনোনয়নের আবেদনপত্র সংগ্রহ এবং জমা নেয়া চলে।

আওয়ামী লীগের উপ-দফতর সম্পাদক সায়েম খান বলেন, পাঁচ উপ-নির্বাচনে ১৪১ মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছেন মনোনয়ন প্রত্যাশীরা। সেই সঙ্গে জমাও দিয়েছেন ১৪১ জন।

যেসব আসনে মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছেন প্রার্থীরা-
ঢাকা-৫ আসনে মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছেন ২০ জন মনোনয়ন প্রত্যাশী। জমাও দিয়েছেন ২০ জন।

ঢাকা-১৮ আসনে মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছে ৫৬ জন আর জমাও দিয়েছেন ৫৬ জন।
পাবনা-৪ আসনে মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছেন ২৮ জন, জমাও দিয়েছেন ২৮ জন।
নওগাঁ-৬ আসনে মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছেন ৩৪ জন, আর জমা দিয়েছেন ৩৪ জন।
সিরাজগঞ্জ-১ আসনে মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছেন ৩ জন আর জমা দিয়েছেন ৩ জন।
এদিকে, জাতীয় সংসদ নির্বাচন ঢাকা-৫ ও নওগাঁ-৬ আসনের নির্বাচন আগামী ১৭ অক্টোবর অনুষ্ঠিত হবে। সেইসঙ্গে নির্ধারিত সময়ে তফসিল ঘোষণা করা হবে। পাবনা-৪ আসনের উপ-নির্বাচন ২৬ সেপ্টেম্বর অনুষ্ঠিত হবে। এছাড়া ঢাকা-১৮ ও সিরাজগঞ্জ-১ আসনের উপ-নির্বাচন আরো ৯০ দিন পিছিয়ে দেয়া হয়েছে।

রোববার বিকেলে রাজধানীর আগারগাঁওয়ে নির্বাচন কমিশন ভবনে কমিশনের সভা শেষে নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ের সিনিয়র সচিব মো. আলমগীর সাংবাদিকদের এসব তথ্য জানান।
তিনি জানান, নির্বাচনের জন্য করোনা পরিস্থিতিতে পথসভা, মিছিল, সভা-সমাবেশ এবং বাড়ি বাড়ি গিয়ে ভোট চাওয়া যাবে না। এছাড়া প্রশাসকের মেয়াদ শেষ হলে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের (চসিক) নির্বাচন করা হবে।

প্রসঙ্গত, গত ২৭ জুলাই নওগাঁ-৬ আসনের এমপি ইসরাফিল আলম, ৯ জুলাই ঢাকা-১৮ আসনের এমপি সাহারা খাতুন, ১৩ জুন সাবেক স্বাস্থ্যমন্ত্রী ও সিরাজগঞ্জ-১ আসনের এমপি মোহাম্মদ নাসিম, ৬ মে ঢাকা-৫ আসনের এমপি হাবিবুর রহমান মোল্লা ও ২ এপ্রিল পাবনা-৪ আসনের এমপি শামসুর রহমান শরিফ ডিলুর মৃত্যুতে এ পাঁচটি আসন শূন্য হয়।
পূর্বপশ্চিমবিডি/এসএস

Check Also

জোরে গান বাজিয়ে পরিবারের ৪ জনকে কুপিয়ে খুন, কিশোর গ্রেপ্তার

প্রচণ্ড শব্দে গান বাজিয়ে বাড়িতে একে একে মা, বোন, দাদা ও এক প্রতিবেশীকে কুপিয়ে খুন …

Leave a Reply

Your email address will not be published.