Breaking News

গণধর্ষণের পর খুন হওয়া ‘দিসা মনি’ হঠাৎ জীবিত উদ্ধার

১৫ বছরের মেয়ে দিসা মনি, শীতলক্ষ্যায় বেড়াতে গিয়ে গণধর্ষণের পর তাকে হত্যা করা হয়েছে। এমনটাই সবত্র প্রচারিত হয়েছে। তাকে গণধর্ষণ করে হত্যার ঘটনায় পুলিশ ৩ জনকে গ্রেপ্তার করেছে।

একইসাথে গ্রেপ্তারকৃতরা জবানবন্দি ও দিয়েছে। সেই ঘটনায় মাস না পেরুতেই হঠাৎ মোবাইল ফোনে আসে দিসার কল। পরিবার থেকে দিসা ৪ হাজার টাকা চান। মৃত মেয়ে হঠাৎ কল দেয়ায় আকষ্কিকভাবে বিব্রত হয়ে পড়েন পরিবার।

মেয়ের কথায় টাকা পাঠিয়ে রেললাইন এলাকায় ছুটে যান জিসার মা-বাবা। পরে খবর পেয়ে পুলিশ জিসা মনিকে সদর মডেল থানায় নিয়ে আসে। বর্তমানে সে পুলিশি হেফাজতে আছে। এ বিষয়ে নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা

আসাদুজ্জামান বলেন, ‘মেয়েটিকে উদ্ধার করা হয়েছে। সে পুলিশের হেফাজতে রয়েছে। গ্রেফতার তিন আসামি কেন এই রকম জবানবন্দি দিয়েছে সেটা বলতে পারছি না। আমরা তাদের আবার রিমান্ডে নেব। রিমান্ডে তাদের পুনরায় জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে।’

এদিকে, এর আগে, দীর্ঘ ১ মাস খোঁজাখুজির পর মেয়েকে না পেয়ে ৬ আগস্ট সদর মডেল থানায় অপহরণ মামলা করেন বাবা জাহাঙ্গীর হোসেন। মামলার তদন্তভার পান সদর মডেল থানার উপপরিদর্শক (এসআই) শামীম আল মামুন।

এ মামলায় গ্রেফতার করা হয় বন্দর উপজেলার খলিলনগর এলাকার আমজাদ হোসেনের ছেলে আব্দুল্লাহ (২২), পশ্চিমপাড়া এলাকার সামসুদ্দিনের ছেলে রকিব (১৯) ও নৌকার মাঝি খলিলকে (৩৬)। মামলায় জিসা

মনির বাবা জাহাঙ্গীর উল্লেখ করেন, আব্দুল্লাহ তার মেয়েকে স্কুলে যাওয়া-আসার পথে প্রেমের প্রস্তাব দিত।
তাকে বিরক্ত করতে নিষেধ করা হলে সে আমার মেয়েকে অপহরণের হুমকি দেয়। ৪ জুলাই সন্ধ্যায় আব্দুল্লাহ জিসা মনিকে ফোন দিয়ে তার কাছে যেতে বলে। এরপর থেকেই আমার মেয়ের কোন খোঁজ নেই।

Check Also

জোরে গান বাজিয়ে পরিবারের ৪ জনকে কুপিয়ে খুন, কিশোর গ্রেপ্তার

প্রচণ্ড শব্দে গান বাজিয়ে বাড়িতে একে একে মা, বোন, দাদা ও এক প্রতিবেশীকে কুপিয়ে খুন …

Leave a Reply

Your email address will not be published.