প্রতিবেশী দেশের বন্ধু নামের শত্রুরা শেখ হাসিনাকে গণভবনে বন্দি করে রেখেছে: আলাল

113

শের রাজনৈতিক অঙ্গনে বর্তমানে বিএনপির অবস্থা খুব একটা ভালো নয়। দেশের এই বৃহত্তম দলের চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থা খুব একটা ভালো নয়। তিনি জামিনে মুক্তি পাওয়ার পর থেকে এখন পর্যন্ত বাসায় রয়েছেন। তবে তার উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে বিদেশে নেওয়ার কথা বলছেন দলের সিনিয়র নেতারা ও তার পরিবার সদস্যরা। কিন্তু এই বিষয়ে সরকার থেকে কোনো অনুমতি পাচ্ছে না দেশের এই বৃহত্তম দল বিএনপি। আর আজ একটি মানববন্ধনে বিএনপির নেতারা বিভিন্ন বিষয়ে বক্তব্য দয়েছেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গণভবনে এবং বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া গুলশানে বন্দি বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির যুগ্ম-মহাসচিব অ্যাডভোকেট সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল।প্রধানমন্ত্রীকে উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, ’মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে গুলশানে বন্দি করে রেখেছেন আর আপনাকে আপনার ডানে-বামের লোকেরা গণভবনে বন্দি করে রেখেছে। প্রতিবেশী দেশের আপনার বন্ধু নামের শ’ত্রু’রা আপনাকে গণভবনে বন্দি করে রেখেছে। দুই জায়গায় দুই নেত্রী বন্দি থাকলে দেশের অবস্থা ভালো থাকতে পারে না। এটা যতক্ষণ পর্যন্ত উপলব্ধি করতে না পারবেন ততক্ষণ পর্যন্ত এদেশে ভালো কিছু হবে না। এটা উপলব্ধি করার জন্য আপনার প্রতি অনুরোধ থাকলো। শেখ মুজিবের কন্যা হিসেবে এই বোধোদয়টা আপনার হোক।’

সোমবার (২৮ সেপ্টেম্বর) দুপুরে নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে দ্রব্যমূল্যের দামবৃদ্ধির প্রতিবাদে নারী ও শিশু অধিকার ফোরাম আয়োজিত মানববন্ধনে তিনি এসব কথা বলেন।

’আওয়ামী লীগের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র চলছে’- ক্ষমতাসীন দলের নেতাদের এমন বক্তব্যের সমালোচনা করে সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল বলেন, ’ওবায়দুল কাদের সাহেব বলেছেন, ’আওয়ামী লীগের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র চলছে, শেখ হাসিনার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র চলছে’, হ্যাঁ ষড়যন্ত্র চলছে, চলছে তো আমরাও জানি। সেটাই তো আমরা দূরে বসে চিন্তা করি। একটা বড় দলের নেত্রী তাঁর নিজ দলের নেতাকর্মীদের হা’তে আবার কখন কোনও অ’পকর্মের শি’কা’র না হয়? যেটা মরহুম শেখ মুজিবুর রহমান সাহেব হয়েছিলেন।’

তথ্যমন্ত্রী ড.হাছান মাহমুদের সমালোচনা করে যুবদলের সাবেক এই সভাপতি বলেন, ’আপনাদের দলের সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মহীউদ্দীন খান আলমগীর কীসের ওপর ডক্টরেট করেছিলেন সেটা আমরা জানি। তিনি স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের লাল বাতি জ্বালিয়ে এখন নিজের ঘরের মন্ত্রী হয়ে বসে আছেন। আর আপনিও একজন ডক্টরেট ডিগ্রিধারী। আপনি পিএইচডি থিসিস করেছেন মানব মলের ওপরে, সেটাও আমরা জানি।’

তিনি বলেন, ’এ সরকারের আমলে শুধু দ্রব্যমূল্যের বৃদ্ধি হয়নি সব কিছুরই বৃদ্ধি হয়েছে। ধ’/র্ষ’/ণ বলেন খু’’ন বলেন সবকিছুই এ সরকারের আমলে বৃদ্ধি পেয়েছে। সুতরাং লড়াই ছাড়া আমাদের মুক্তি নেই। আজকে নারী ও শিশু অধিকার ফোরাম যে প্রতিবাদ করছেন এটিকে সামনের দিকে এগিয়ে নিয়ে যেতে হবে।’

আয়োজক সংগঠনের সদস্য ও ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি আজিজুল বারী হেলালের সভাপতিত্বে মানববন্ধনে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান, সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী, স্বেচ্ছাসেবকবিষয়ক সম্পাদক মীর সরাফত আলী সপু, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট আবদুস সালাম আজাদ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। এছাড়াও দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায় সাধারণ কর্মীদের পাশে দাঁড়িয়ে মানববন্ধনে অংশগ্রহণ করেন।
সূত্র:ব্রেকিংনিউজ

এদিকে, বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার উন্নত চিকিৎসা চান দলের নেতাকর্মীরা। তবে তাকে জামিনে মুক্তি দেওয়ার আগে সরকারের তরফ থেকে দুইটি শর্ত দেওয়া হয় যার মধ্যে একটা হল তিনি বাসা থেকে বের হতে পারবেন না আর একটি হল তিনি কোনো ভাবেই বিদেশে যেতে পারবেন না। তবে তার উন্নত চিকিৎসার জন্য বিদেশে নিয়ে যাওয়ার জন্য সরকার সাথে আলোচনার চেষ্টা করছে খালেদা জিয়ার পরিবারের লোকেরা।