কিশোরগঞ্জে আমড়াগাছে কিশোরের ঝুলন্ত লাশ, পরিবারের দাবি হ'ত্যা

IPL ের সকল খেলা  লাইভ দেখু'ন এই লিংকে  rtnbd.net/live

কিশোরগঞ্জে আমড়াগাছ থেকে রাকিব মিয়া (১৬) নামের এক কিশোরের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। আজ বৃহস্পতিবার সকালে সদর উপজেলার কর্শাকড়িয়াল ইউনিয়নের দামপাড়া গ্রামের আব্দুল্লাহর লেয়ার মুরগির ফার্মের কাছ থেকে লাশটি উদ্ধার করা হয়। রাকিব মিয়া সদর উপজেলার কর্শাকড়িয়াইল ইউনিয়নের কড়িয়াইল গ্রামের কৃষক বাবুল মিয়ার ছেলে। রাকিবের পরিবারের দাবি, হ'ত্যার পর লাশ আমড়াগাছে ঝুলিয়ে রাখা হয়েছিল। পুলিশ ও পরিবার সূত্রে জানা যায়, সদর উপজেলার কর্শাকড়িয়াল ইউনিয়নের দামপাড়া গ্রামের আব্দুল্লাহর লেয়ার মুরগির ফার্মে পাহারাদার হিসেবে আট মাস ধরে চাকরি করত রাকিব মিয়া। প্রতি শুক্রবার ছুটিতে বাড়িতে যেত। এই শুক্রবারেও বাড়ি আসার কথা ছিল। কিন্তু বৃহস্পতিবার ভোর পাঁচটার দিকে লেয়ার মুরগির ফার্মের মালিক আব্দুল্লাহ কড়িয়াল গ্রামে রাকিবের বাড়িতে গিয়ে জানান, রাকিবকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। পরে মোটরসাইকেলে করে স্বজনেরা খোঁজাখুঁজি করে আব্দুল্লাহর লেয়ার মুরগির ফার্মের পাশেই আমড়াগাছে রাকিবের মরদেহ দেখতে পান। পুলিশ এসে রাকিবের মরদেহ উদ্ধারের পর প্রাথমিক সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরি করে ময়নাতদন্তের জন্য কিশোরগঞ্জ ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠায়। রাকিবের ভাই ফেরদৌস আজকের পত্রিকাকে বলেন, ‘আমার ভাইয়ের কোনো শত্রু নাই। আমাদের পারিবারিক কোনো চাপও নাই। খবর শুনে আমরা গিয়ে দেখি খামারের পাশেই একটি আমড়াগাছে ভাইয়ের মরদেহ ঝুলে আছে। এ সময় দেখি রাকিবের শরীরে বিভিন্ন অংশে কাদা লেগে আছে। তার পরনের প্যান্টও খোলা। যে অবস্থায় তাকে দেখলাম তাতে আত্মহ'ত্যা মনে হয় না। আমার ভাইরে মাইরা ফেলাইছে। লাশ যেভাবে গাছে ঝুইলা ছিল, সেইটা দেখলেই বোঝা যায় আমার ভাইরে মাইরা ফেলছে।’ রাকিবের চাচাতো ভাই নূর মোহাম্মদ বলেন, ‘ আট মাস আগে থেকে সাড়ে আট হাজার টাকা বেতনে দামপাড়া এলাকায় আব্দুল্লাহর খামারে কাজ শুরু করে রাকিব। এর পর থেকে সেখানেই থাকত। খামারে কাজ শুরুর এক মাস পর থেকে আব্দুল্লাহর বড় ভাই মো. তাজুল ইসলামের মেয়ের সঙ্গে রাকিবের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। এদিকে খামার মালিক আব্দুল্লাহ এবং তার বড় ভাই মো. তাজুলের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে পারিবারিক ঝামেলা চলছিল। এসব ঘটনা গত এক মাস পূর্বে রাকিবের মাকে জানিয়েছিল আব্দুল্লাহ। পরে রাকিবের পরিবারের লোকজন তাকে শাসন করেছিল।’ এরপর বৃহস্পতিবার ভোর পাঁচটার দিকে খামারের মালিক আব্দুল্লাহ তাঁদের বাড়িতে গিয়ে বলেন, রাকিবকে পাওয়া যাচ্ছে না। এ সময় আব্দুল্লাহর সঙ্গেই রওনা হন তাঁরা। পরে সেখানে গিয়ে দেখেন খামারের প্রায় দেড় শ গজ সামনে একটি আমড়াগাছে রাকিবের মরদেহ ঝুলছে। পরিবারের দাবি, রাতের কোনো একসময়ে রাকিবকে পরিকল্পিতভাবে হ'ত্যা করা হয়। পরে বিষয়টি ধামাচাপা দিতেই গাছে ঝুলিয়ে রাখা হয়েছে। এ ঘটনায় তদন্ত সাপেক্ষে আইনানুগ ব্যবস্থার দাবি জানিয়েছেন তাঁরা। কিশোরগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মনতোষ বিশ্বাস বলেন, খবর পেয়ে মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কিশোরগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। তার শরীরে আঘাতের কোনো চিহ্ন পাওয়া যায়নি। এ বিষয়ে তদন্ত সাপেক্ষে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে। Great)

Check Also

এরদোগানবিরোধী প্রচারণায় ব্রিটিশ গণমাধ্যম ইকোনোমিস্ট

তুরস্কের প্রেসিডেন্ট ও পার্লামেন্ট নির্বাচনের ১০ দিন আগে প্রকাশিত ব্রিটিশ সাপ্তাহিক পত্রিকা ইকোনোমিস্ট কভার পেজসহ …