জায়গা ভিক্ষুকদের, পাকা স্থাপনা গড়ছেন এসিল্যান্ডের গাড়িচালক

64

সাতক্ষীরার পাটকেলঘাটা থানার কপোতাক্ষ নদের চরভরাটি জমিতে গড়ে উঠেছে নীলিমা ইকোপার্ক। সেখানেই তৎকালীন বিভাগীয় কমিশনার আব্দুস সামাদ ভিক্ষুক পুনর্বাসনের জন্য করে দেন নির্ধারিত স্থান। তবে এবার সেই ভিক্ষুক পুনর্বাসন স্থানের চরভরাটি জমি দখল করে পাকা স্থাপনা নির্মাণ করছেন তালা সহকারী কমিশনারের (ভূমি) গাড়িচালক।

ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখা যায়, নীলিমা ইকো পার্কের মধ্যে ভিক্ষুকদের পুনর্বাসনের জন্য নির্ধারিত স্থান দখল করে পাকা স্থাপনা নির্মাণের কাজ চলমান রয়েছে। নির্মাণ সামগ্রী রাখা হয়েছে চারপাশে। তাছাড়া শ্রমিকও কাজ করছেন।

অনেকেই অভিযোগ করেন, এসিল্যান্ডের গাড়িচালক মোখলেসুর রহমান নির্মাণ করছেন স্থাপনাটি।

সরুলিয়া ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মতিয়ার রহমান জানান, এই জায়গা পার্কের নামে জরিপ করা হয়েছে। তৎকালীন বিভাগীয় কমিশনার আব্দুস সামাদ ও জেলা প্রশাসক আবুল কাশেম মো. মহিউদ্দীন এই স্থানে ভিক্ষুকদের পুনর্বাসনের জন্য জায়গা নির্ধারণ করে দেন। এখনও কয়েকজন ভিক্ষকু এখানে ব্যবসা করছেন।

স্থানীয় বাসিন্দা জামাল উদ্দীন বলেন, অদৃশ্য ক্ষমতাবলে এসিল্যান্ডের গাড়িচালক এই সরকারি স্থানে ভিক্ষুক পুনর্বাসনের সাইনবোর্ড সরিয়ে প্রায় ৮ শতক জমির ওপর পাকা বাড়ি নির্মাণ করছেন সম্পূর্ণ অবৈধভাবে। এটি নিয়ে এখন সর্বত্র সমালোচনা চলছে।

তবে চরভরাটি ভিক্ষুকদের জমি দখলের বিষয়ে এসিল্যান্ডের গাড়িচালক মোখলেসুর রহমান জানান, সবাই আমার কাছে জানতে চাই। আমি কিছু জানি না। আমি কোনো ঘরবাড়ি বা স্থাপনা করছি না। এটা স্যারেরা করছে। আপনি স্যারের কাছে শোনেন।

এ ব্যাপারে তালা সহকারী কমিশনার (ভূমি) এসএম তারেক সুলতান বলেন, পাকা স্থাপনা তৈরির বিষয়ে ডিসি স্যার আমাকে নির্দেশনা দিয়েছেন। ঘটনাটি তদন্ত করছি। তদন্ত শেষে তদন্ত প্রক্রিয়া অনুসারে আমরা ব্যবস্থা নেব।

এসিল্যাণ্ডের গাড়িচালক মোখলেসুর রহমানের দেয়া তথ্যের প্রেক্ষিতে তালা উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. তারিফ উল হাসান বলেন, ঘটনাটি যেহেতু জানলাম। তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক এসএম মোস্তফা কামাল বলেন, পাকা স্থাপনা নির্মাণ হচ্ছে ঘটনাটি দৃষ্টিতে আসার পর নির্মাণ কাজ বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। তাছাড়া ঘটনাটির তদন্ত করার জন্য এসিল্যান্ডকে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।