বিএনপির কারণে সিটি নির্বাচনে ভোট কম পড়েছে : হাছান

198

স্টাফ রিপোর্টার:ঢাকা সিটি নির্বাচনকে উপমহাদেশের ইতিহাসে চমৎকার নির্বাচন বলে আখ্যায়িত করেছেন তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ। তিনি বলেন, ‘ইভএমের বিরুদ্ধে অবস্থানসহ বিএনপির নেতিবাচক প্রচারণায় মানুষের মধ্যে সংশয় দেখা দেয়।এতে অনন্ত ৮ থেকে ১০ শতাংশ ভোট কমেছে।’ সোমবার (৩ ফেব্রুয়ারি) জাতীয় সংসদে রাষ্ট্রপতির ভাষণের ওপর আনা ধন্যবাদ প্রস্তাবের আলোচনায় অংশ নিয়ে তিনি এসব কথা বলেন।ঢাকা সিটি করপোরেশন নির্বাচন প্রসঙ্গে তথ্যমন্ত্রী বলেন,‘এই নির্বাচনে কোনও হাঙ্গামা হয়নি, কোনও কেন্দ্র দখলের ঘটনা ঘটেনি, কোনও লোক ক্ষয় হয়নি।

কলকাতা সিটির নির্বাচনে সংঘাতের ঘটনার উদাহরণ টেনে হাছান মাহমুদ বলেন,‘কলকাতা সিটি নির্বাচনে বিজেপির প্রার্থী রূপা গাঙ্গু’লিকে স্টেট থেকে পালিয়ে ঘরের মধ্যে তালাবদ্ধ হয়ে থাকতে হয়। ওই নির্বাচনে বেশকিছু লোকক্ষয় হয়। সেই বিচার করলে ঢাকা সিটির নির্বাচন উপমহাদেশের এটি চমৎকার ও ভালো নির্বাচন।

’তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘কাগজে দেখছি, নির্বাচনে কম সংখ্যক লোক ভোট দিতে গেছে। যুক্তরাষ্ট্রে ভোটার যোগ্য মানুষের ৬০ ভাগ নিবন্ধিত হয়। আর সেই ৬০ ভাগের ৪০ থেকে ৫০ ভাগ কাস্ট হয়। মোটের ওপর ২৪ থেকে ৩০ শতাংশ ভোট কাস্ট হয়। আর ঢাকা দক্ষিণ সিটিতে ২৯ শতাংশ এবং উত্তর সিটিতে ২৫ শতাংশ ভোট পড়েছে। এই ভোটের হার অনেক বেশি হতো।

হাছান মাহমুদ বলেন, ‘বিএনপি প্রথম থেকেই বলে আসছে, তারা এই নির্বাচনকে আন্দোলনের অংশ হিসেবে নিয়েছে।  তাদের আন্দোলন মানে হাঙ্গামা-ভোট কেন্দ্র জ্বালানো। কাজেই আন্দোলনের অংশ হিসেবে তাদের ভোটে অংশ নেওয়ার খবরে মানুষ শঙ্কিত হয়ে যায়।

নির্বাচনের মাঠে থাকাকে বিএনপি যখন সফলতা বলে, তখন মানুষ মনে করবে বিএনপি প্রতিদ্বন্দ্বিতা থেকে হয়তো সরে গেছে।’ এতে মানুষ ভোট দেওয়ার আগ্রহ হারিয়ে ফেলে বলেও তিনি মন্তব্য করেন।

Loading...