নৌকা প্রতীক না পেয়ে অঝোরে কাঁদলেন আওয়ামী লীগ নেতা

BPL 2023 লাইভ দেখুন এই লিংকে  rtnbd.net/live

চেয়ারম্যান পদে নৌকা প্রতীক না পেয়ে দল থেকে অব্যাহতি নিয়েছেন আশুলিয়া থানা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শামীম আহমেদ সুমন। এ বিষয়ে সংবাদ সম্মেলন করতে এসে কান্নায় ভেঙে পড়েন তিনি।

তবে তিনি মায়ের দেখভাল ও পারিবারিক কারণে অব্যাহতি নিয়েছেন বলে জানান। মঙ্গলবার (১৩ ডিসেম্বর) বিকেলে আশুলিয়ার জামগড়ায় নিজ বাসায় সংবাদ সম্মেলন করে তিনি এসব কথা জানান।

এর আগে ১০ ডিসেম্বর আশুলিয়া থানা আওয়ামী লীগ সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক বরাবর পদের অব্যাহতি চেয়ে আবেদন করলে ১২ ডিসেম্বর দপ্তর সম্পাদক সেটি গ্রহণ করেন।

সংবাদ সম্মেলনে অব্যাহতির কারণ হিসেবে সুমন জানান, বাবার মৃত্যুর পর তিনি শারীরিক ও মানসিকভাবে বিপর্যস্ত হওয়ায় বর্তমানে দলীয় কার্যক্রম পরিচালনা করা তার পক্ষে সম্ভব নয়। এ ছাড়া মা ও পরিবারের দেখভালের দায়িত্ব থেকেই দলের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে পদ থেকে অব্যাহতির অনুরোধ করেন।

তিনি বলেন, দল আমাকে অনেক দিয়েছে, আমি দলকে কিছুই দিতে পারিনি। তবে যত দিন বেঁচে থাকবে তত দিন হৃদয়ে বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে লালন করব এবং আমৃত্যু আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে সম্পৃক্ত থাকব।

সংবাদ সম্মেলনে সুমন আরও বলেন, আমি ছাত্রজীবন থেকে আওয়ামী লীগের রাজনীতির সঙ্গে জড়িত। জীবনের ৪০ বছরের বেশির ভাগ সময় কেটেছে আওয়ামী লীগের রাজনীতি করে। ২০০১-২০০৯ পর্যন্ত ছাত্রলীগের ইউনিয়ন কমিটির সাধারণ সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছি। ২০১১ থেকে ২০১৮ সাল পর্যন্ত যুবলীগের আশুলিয়া থানা কমিটির প্রতিষ্ঠাতা সাংগঠনিক পদে দায়িত্ব পালন করেছি। বর্তমানে আশুলিয়া থানা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদকের পদে দায়িত্বে আছি।

তিনি আরও বলেন, দলের দুঃসময়ে একাধিক মামলায় জেল খেটেছি দীর্ঘদিন। আমার বাবা সৈয়দ আহমেদ মাস্টার গত ২৮ অক্টোবর বার্ধক্যজনিত কারণে মৃত্যুবরণ করেন। তিনিও মৃত্যুর আগ পর্যন্ত সাভার উপজেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি পদে দায়িত্ব পালন করেছেন। এক মাস আগে বাবার মৃত্যুতে এ ইউনিয়নের আসনটি শূন্য হয়। দল থেকে আমি এই নির্বাচনে নৌকা প্রতীকের মনোনয়ন চেয়েছিলাম। তবে দুর্ভাগ্যজনকভাবে আমাকে মনোনয়ন না দিয়ে অন্য একজনকে নৌকা প্রতীক দেওয়া হয়েছে। তবে জনগণ আমাকে চেয়ারম্যান হিসেবে পেতে চায়। তাই নৌকার বিদ্রোহী প্রার্থী না হয়ে দল থেকে পদত্যাগ করে স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়ে আনারস প্রতীকে নির্বাচনে করছি।

স্বতন্ত্রভাবে নির্বাচন করায় দলীয় চাপ রয়েছে কিনা জানতে তিনি বলেন, আমি কোনো ধরনের চাপের মধ্যে নেই। নির্বাচন আর দল তো আলাদা। আমি শুধু পদ থেকে সরে দাঁড়ানোর জন্য দলের অনুমতি চাইছি। আমাকে যারা পদ দিয়েছে, তাদের কাছেই অব্যাহতির অনুমতি চেয়েছি। আমি আওয়ামী লীগের সঙ্গে ছিলাম, আছি এবং আমার শেষ নিশ্বাস পর্যন্ত আওয়ামী লীগের জন্যই কাজ করব।

আয়োজিত সাংবাদিক সম্মেলনে এ সময় সাভার ও আশুলিয়ায় কর্মরত বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ায় কর্মরত সংবাদকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

শামীম আহমেদ সুমনের বাবা ইয়ারপুর ইউনিয়নের তিনবারের স্বর্ণপদকপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান সৈয়দ আহম্মদ ভূঁইয়া। কিছুদিন আগে বাবার মৃত্যুতে শূন্য হওয়া আসনে উপনির্বাচনে নৌকা প্রতীক চেয়েছিলেন শামীম। কিন্তু দল থেকে নৌকা না পেয়ে বর্তমানে তিনি স্বতন্ত্রভাবে আনারস প্রতীক নিয়ে নির্বাচনে অংশ নিয়েছে। আগামী ২৯ ডিসেম্বর ইভিএমের মাধ্যমে এই ইউনিয়নে ভোটগ্রহণ হবে।

Check Also

হিরো আলমের অভিযোগ খতিয়ে দেখতে নির্বাচন কর্মকর্তাকে সিইসির ফোন

বগুড়া-৪ (কাহালু-নন্দীগ্রাম) আসনের উপনির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী আশরাফুল হোসেন ওরফে হিরো আলমের অভিযোগ খতিয়ে দেখার নির্দেশ …

One comment

  1. কুত্তা লীগ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *