ভাঙা মঞ্চের ছবি তুলতে গেলে সাংবাদিকদের লাঞ্ছিত করল ছাত্রলীগ

BPL 2023 লাইভ দেখুন এই লিংকে  rtnbd.net/live

ছাত্রলীগের ৭৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর শোভাযাত্রা অনুষ্ঠানে মঞ্চ ভাঙার ঘটনার পর সাংবাদিকদের লাঞ্ছিত করার অভিযোগ উঠেছে ছাত্রলীগের বিরুদ্ধে। এ সময় এক সংবাদকর্মী আহত হয়েছে বলে জানা যায়। আহত ওই সংবাদকর্মীর নাম শেখ জামাল খান সৌরভ। তিনি এস এ টিভিতে কর্মরত।

শুক্রবার (৬ জানুয়ারি) বিকেলে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অপরাজেয় বাংলার পাদদেশে ছাত্রলীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর শোভাযাত্রার উদ্বোধন অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখছিলেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। তিনি বক্তব্য দেওয়ার একপর্যায়ে ৪টা ১০ মিনিটের দিকে আচমকা মঞ্চ ভেঙে পড়ে।

জানা যায়, মঞ্চ ভেঙে যাওয়ার পর সংবাদকর্মীরা ভিডিও ও ফুটেজ ধারণ করলে এতে বাধা দেয় ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা। কোনো কোনো সংবাদকর্মীর ওপর চড়াও হওয়ারও ঘটনা ঘটেছে বলে জানা যায়।

সংবাদকর্মীদের অভিযোগ, আমরা তো তাদের (ছাত্রলীগের) শত্রু না। আমরা তাদের প্রোগ্রাম কাভারেজ করতে এসেছি। এতে আমাদের ধন্যবাদ জানানো উচিত। কিন্তু তারা উল্টো আমাদের সাথে খারাপ আচরণ করেছেন, যা কোনোভাবেই একটা সরকারদলীয় ছাত্রসংগঠনের কর্মীদের কাছ থেকে কাম্য নয়।

এ নিয়ে বাংলা ট্রিবিউনের ঢাবি প্রতিনিধি আবিদ হাসান রাসেল বলেন, স্টেজ ভেঙে পড়ার সঙ্গে সঙ্গে সব সাংবাদিক ছবি ও ভিডিও ধারণ করতে থাকে, আমিও ছবি তুলি। অপরাজেয় বাংলার পেছন থেকে আমি বটতলার দিকে যাওয়ার সময় দুই ছাত্রলীগ নেতা আমাকে ভিডিও, ছবি ডিলেট করতে হুমকি দেয়। আমি সাংবাদিক পরিচয় দেয়ার পরও বলে তো কী হয়েছে! দুর্ঘটনা ঘটতে পারে, ভিডিও ছবি এখনি ডিলিট কর।

দৈনিক কালবেলা পত্রিকার রিপোর্টার মোতাহের হোসেন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে লিখেন, মঞ্চ বানালেন দুর্বল। আহত অনেকে। ভাঙার সঙ্গে সঙ্গে সাংবাদিকদের অসম্মান। এটাই কি স্মার্ট ছাত্রলীগ!

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতির সদস্য লিটন ইসলাম বলেন, বক্তব্য চলাকালে কোনো সমস্যা নেই, কিন্তু যেই মঞ্চ ভেঙে গেল তখনই সাংবাদিকদের লাঞ্ছিত করল। স্মার্ট ছাত্রলীগের অর্থ কী তাহলে?

আমার বার্তা অনলাইন পোর্টালের ঢাবি প্রতিনিধি জালাল আহমেদ বলেন, ভাঙা মঞ্চের ভিডিও এবং ছবি তোলার অপরাধে আমার প্রেস কার্ড ছিঁড়ে ফেলার চেষ্টা করে। ল্যামিনিটিং করা না থাকলে ছিঁড়েই ফেলত। যে মঞ্চ ভেঙে গেছে, সেটার ভিডিও এবং ছবি তুললে তাদের সমস্যা কোথায়?

এ বিষয়ে ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক শেখ ওয়ালী আসিফ ইনানের সাথে কথা হলে ঘটনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা গ্রহণ করার কথা জানান। তিনি বলেন, আমরা এ ঘটনার জন্য দুঃখ প্রকাশ করছি। যদি এ রকম কোনো ঘটনা ঘটে থাকে তাহলে অবশ্যই আমরা তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করব।

Check Also

‘বিএনপির কোমর ভেঙে গেছে, তাই এখন হাঁটার কর্মসূচি দিয়েছে’

সরকারকে ধাক্কা দিয়ে ফেলতে গিয়ে বিএনপির কোমর ভেঙে গেছে। তাই তারা এখন হাঁটার কর্মসূচি দিয়েছে …

Leave a Reply

Your email address will not be published.