শেষ কয়েকটা দিন প্রস্তুতি আরও বাড়িয়ে দিন

IPL ের সকল খেলা  লাইভ দেখু'ন এই লিংকে  rtnbd.net/live

৪৫তম বিসিএসের প্রিলিমিনারি পরীক্ষা ১৯ মে অনুষ্ঠিত হবে। সে হিসাবে হাতে রয়েছে মাত্র কয়েক দিন। শেষ সময়ের প্রস্তুতির ওপর নির্ভর করবে প্রিলিমিনারি পরীক্ষার সার্বিক সফলতা। বিসিএস প্রিলিমিনারি পরীক্ষার্থীদের শেষ সময়ের প্রস্তুতি নিয়ে বিস্তারিত জানিয়েছেন ৩৮তম বিসিএসের (পুলিশ ক্যাডার) সহকারী পুলিশ সুপার জহিরুল ইসলাম।আপনার দৈনন্দিন কর্মঘণ্টা (যাঁরা জব করেন) ও অন্যান্য বিষয় বিবেচনায় নিন। যাঁরা কোনো চাকরি বা অন্য কিছুর সঙ্গে জড়িত নন তাঁরা জীবনধারণ পদ্ধতি যেমন—ঘুমানোর সময় বা পড়াশোনা ভালো লাগার সময় বিবেচনায় নিন। আপনার সময় ও পড়াশোনার মধ্যে একটি সুবিধাজনক অবস্থা (ট্রেড অফ) মাথায় রেখে কার্যকর রুটিন তৈরি করুন। শেষ মুহূর্তে প্রস্তুতির জন্য পড়ার টেবিলে সময় বাড়িয়ে দিন। কেননা, এ সময়টা খুবই কার্যকর সময়। সাধারণত এখন টেবিলে ১২-১৫ ঘণ্টা (আপনার জন্য যেমন প্রয়োজন) নিয়মিত সময় দিন। বাঁধাধরা রুটিনের পরিবর্তে ফ্ল্যাক্সিবল রুটিন করুন।পড়াশোনা পুনর্বিবেচনা করুনসময় নিয়ে বিসিএস প্রিলিমিনারি পরীক্ষার সিলেবাস পুনরায় দেখে নিন এবং কোনো গুরুত্বপূর্ণ বিষয় বাদ পড়েছে কি না মিলিয়ে (চেক করে) নিন। যেসব টপিক কম গুরুত্বপূর্ণ বা বিগত বছরগুলোতে প্রশ্ন হয়নি এমন টপিক এড়িয়ে যান। অথবা এমন বিষয় যা আপনার পক্ষে এই সময়ে পড়া সম্ভব নয় বা কোনোভাবেই মনে থাকছে না তা বাদ দিন। যেমন—আপনি হয়তো বাংলা বা ইংরেজি সাহিত্যের কোনো লেখকের বিষয়ে পুরোপুরি পড়েননি। এখন আর তাঁদের সম্পর্কে বিস্তারিত না পড়ে শুধু দুয়েকটি বিখ্যাত সাহিত্যের নাম জেনে নিতে পারেন।কোনো টপিক ফেলে না রাখাসময় যেহেতু খুব কম তাই কোনো টপিক বা সাবজেক্ট শেষে পড়বেন এমন ভেবে হাতে রাখাটা বুদ্ধিমানের কাজ হবে না। এভাবে রেখে গেলে দেখবেন অনেকগুলো টপিক জমে গেছে; কিন্তু হাতে কোনো সময় নেই। এটা আপনাকে শেষ মুহূর্তে এমনভাবে বিচলিত করে তুলতে পারে, যা পুরো প্রস্তুতিতে মারাত্মক প্রভাব ফেলবে।মডেল টেস্ট অনুশীলন করুনআগামী কয়েকদিনে আপনাকে অবশ্যই পাঁচটি মডেল টেস্ট অনুশীলন করতেই হবে। মডেল টেস্ট অনুশীলনের জন্য বিকেল বা দুপুরের সময়টা নির্বাচন করুন; কিন্তু টেস্ট অনুশীলন যথাযথ গুরুত্ব দিয়ে করতে হবে। মডেল টেস্টের মূল্যায়ন অন্য কাউকে দিয়ে করাতে পারেন তাতে সময় বাঁচবে। তবে কোন কোন প্রশ্নে ভুল হয়েছে তা নিজে দেখে নিন। সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হচ্ছে, মডেল টেস্ট সিলেকশন করা; বাজারে প্রচলিত মডেল টেস্টের প্রথম দিকের বা শেষের দিকের থেকে বাছাই না করে মাঝের দিক থেকে সিলেক্ট করুন। কেননা, প্রথমে বেশি সহজ এবং শেষে বেশি কঠিন টেস্ট থাকে। কোচিং সেন্টারের মধ্যে ‘ওরাকল’ কোচিং সেন্টারে মডেল টেস্ট দিতে পারেন, এটা বেশ মানসম্মত।আত্মবিশ্বাস ধরে রাখু'নবিসিএস প্রিলিমিনারি পরীক্ষার্থীরা দীর্ঘ সময় ধরে পরিশ্রম করেছেন এবং ইতিমধ্যে অনেক বিষয় রপ্ত করেছেন। আর পরীক্ষায় ১৮০ বা ২০০টি প্রশ্নের উত্তর পারতে হবে, এমনও নয়। বরং ৬০ শতাংশ নম্বর আপনাকে কাঙ্ক্ষিত লক্ষ্যে পৌঁছে দিতে পারে। তাই আপনি যা জানেন তা যদি পরীক্ষায় প্রয়োগ করতে পারেন তাহলেই আপনি সফল, এমন আত্মবিশ্বাস রাখু'ন। কোচিং সেন্টারে মডেল টেস্ট দিয়ে সারা দেশে নিজের পজিশন বিবেচনায় নিয়ে আত্মবিশ্বাস বৃদ্ধি করতে পারেন। খেয়াল রাখবেন, হিতে যেন বিপরীত না হয়। কারণ কোচিং সেন্টারে মধ্যমসারির পারফর্মাররা ফাইনালে আরও ভালো করে। তাই একটু খারাপ হলেও ঘাবড়ে যাবেন না।প্রস্তুতি নিতে কৌশলী হোননম্বর বণ্টনের গুরুত্ব বুঝে সময় ব্যয় করুন। খুব বেশি বিস্তারিত, সাল, জন্ম, মৃত্যু, তারিখ ইত্যাদি এড়িয়ে চলুন। কেবল গুরুত্বপূর্ণ লেখকের জন্ম-মৃত্যু তারিখ, গুরুত্বপূর্ণ সাল মনে রাখার চেষ্টা করুন। কোনো টপিক একেবারে ছেড়ে দেবেন না; বরং অবশ্যই কমপক্ষে প্রিলিমিনারি ডাইজেস্ট থেকে পড়ে নিন।ঝামেলামুক্ত থাকুনশেষের কয়েক দিন সব ধরনের ঝামেলা থেকে নিজেকে মুক্ত রাখু'ন। এ সময় শুধু পড়াশোনা নিয়ে থাকুন, বন্ধুদের সঙ্গে সংক্ষিপ্ত খোশগল্প করতে পারেন। বিকেলে হাঁটতে পারেন এবং গান শুনতে পারেন (যা আপনাকে মানসিকভাবে চাঙা করে)।কাজের সঙ্গে সমন্বয় করুনবর্তমান কাজের সঙ্গে পড়াশোনার সময়ের সমন্বয় করুন। যেমন—আপনার অফিস সকাল ১০টায় হলে, ভোর ৫টা থেকে সকাল ৯টা পর্যন্ত (৪ ঘণ্টা) পড়াশোনা করতে পারেন বা রাত জেগে পড়তে পারেন। কোনোভাবে ১০-১২ দিনের ছুটির ব্যবস্থা করুন। মনে রাখবেন, শুক্র ও শনিবার আপনার জন্য সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ, এদিনগুলো কাজে লাগান।আরও গুরুত্বপূর্ণ যত বিষয়—প্রতিটি সাবজেক্টের সব টপিক পড়েছেন, এটা নিশ্চিত করুন (কমপক্ষে প্রিলিমিনারি ডাইজেস্ট থেকে হলেও)। মানসিক চাপমুক্ত থাকুন, তবে শেষ সময়ে পরিশ্রম করুন। হতাশ হবেন না; বরং পড়াশোনা গুছিয়ে নিন। বাংলা, ইংরেজি এবং সাধারণ জ্ঞানের সিলেবাস সংক্ষিপ্ত করে নিন। মনে রাখবেন, শেষের কয়েক দিন বিসিএস প্রিলিমিনারি পরীক্ষার প্রস্তুতির জন্য ভালো সময়। সাধারণ জ্ঞানের আপডেটগুলো দেখে নিন।৪৫তম বিসিএস প্রিলিমিনারি পরীক্ষার সব প্রার্থীর জন্য শুভকামনা। অনুলিখন: আনিসুল ইসলাম নাঈম awesome)

Check Also

গাজীপুর সিটি নির্বাচন: লাঙলের প্রার্থীর ইশতেহার ঘোষণা

গাজীপুর সিটি করপোরেশনকে একটি পরিকল্পিত নগর হিসাবে গড়ে তোলার অঙ্গীকার করে ইশতেহার ঘোষণা করেছেন সিটি …