সাম্প্রদায়িক শক্তিকে ক্ষমতার বাইরে রাখতে শ্রমিক আন্দোলন জারি রাখতে হবে: মে দিবসে ইনু

IPL ের সকল খেলা  লাইভ দেখু'ন এই লিংকে  rtnbd.net/live

জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের (জাসদ) সভাপতি হাসানুল হক ইনু শ্রমিক-কর্মচারীদের প্রতি আহ্বান জানিয়ে বলেছেন, যে কোনো পরিস্থিতিতে শ্রমিকদের নিজস্ব দাবি আদায় এবং ধর্মান্ধ সাম্প্রদায়িক শক্তিকে ক্ষমতার বাইরে রাখার লড়াই জারি রাখতে হবে। মহান মে দিবস উপলক্ষে আজ সোমবার সকাল ১০টায় রাজধানীর বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউয়ে জাসদ চত্বরে জাতীয় শ্রমিক জোট-বাংলাদেশ কেন্দ্রীয় কমিটির উদ্যোগে এক শ্রমিক সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন ইনু। হাসানুল হক ইনু বলেন, ধর্মান্ধ সাম্প্রদায়িক শক্তি শ্রমিক ঐক্যের শত্রু, নারী শ্রমিকের শত্রু, দেশের শত্রু। এ সময় বাজার দরের সঙ্গে মিলিয়ে শ্রমিকদের জন্য ন্যূনতম জাতীয় মজুরি ঘোষণার জন্য সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়ে ইনু বলেন, ট্রেড ইউনিয়ন অধিকার শ্রমিকের অলংখনীয় মানবাধিকার। কোনো অজুহাতেই ট্রেড ইউনিয়ন অধিকার খর্ব করা যাবে না। তিনি শ্রমিক-কর্মচারীদের জন্য কলকারখানা ও শিল্পাঞ্চলে রেশনিং ব্যবস্থা চালু করার জন্য সরকারের প্রতি আহ্বান জানান।সমাবেশে বিভিন্ন শিল্প কলকারখানা-শিল্পাঞ্চল এবং গার্মেন্টস শ্রমিক জোট, পুস্তক বাঁধাই শ্রমিক জোট, বাংলাদেশ পরিবহন হকার্স জোট, নির্মাণ শ্রমিক জোটসহ বিভিন্ন ইউনিয়ন ও ক্রাফ ফেডারেশনের শ্রমিকেরা অংশ নেন। সমাবেশ শেষে তাঁরা লাল পতাকা মিছিল করে বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউ, পল্টন, তোপখানা এলাকা প্রদক্ষিণ করেন।জাতীয় শ্রমিক জোট-বাংলাদেশ–এর সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা সাইফুজ্জামান বাদশার সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক নইমুল আহসান জুয়েলের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত সমাবেশে বিশেষ অতিথি হিসাবে জাসদের সাধারণ সম্পাদক শিরীন আখতার বক্তব্য রাখেন। শিরীন আখতার তাঁর বক্তব্যে মহান মে দিবস উপলক্ষে শ্রমিক-কর্মচারী-শ্রমজীবী-কর্মজীবী-মেহনতি মানুষদের শুভেচ্ছা জানিয়ে বলেন, শ্রমিক ঐক্য এবং ঐক্যবদ্ধ শ্রমিক আন্দোলনই শ্রমিক অধিকার প্রতিষ্ঠা ও রক্ষার একমাত্র পথ। তিনি বলেন, রাজনৈতিক ডামাডোলে শ্রমিকের দাবি যেন হারিয়ে না যায় তার জন্য শ্রমিকদের সজাগ থাকতে হবে। উন্নয়নশীল দেশে, মধ্যম আয়ের দেশে শ্রমিকদের জন্য ২০ বা ২৩ হাজার টাকা ন্যূনতম মজুরি খুবই সামান্য বিষয়। তিনি ন্যূনতম জাতীয় মজুরির দাবি মেনে নেওয়ার জন্য সরকারের প্রতি আহ্বান জানান।সমাবেশে আরও বক্তব্য রাখেন জাতীয় নারী জোটের সভাপতি আফরোজা হক রীনা, জাসদের সহসভাপতি মীর হোসাইন আখতার, নুরুল আখতার, জাতীয় যুব জোটের সভাপতি রোকনুজ্জামান রোকন, জাতীয় শ্রমিক জোট-বাংলাদেশ–এর সহসভাপতি আব্দুর রাজ্জাক, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সরদার খোরশেদ, বাংলাদেশ ছাত্রলীগ (ননী-মাসুদ) কেন্দ্রীয় সংসদের সভাপতি রাশিদুল হক ননী, জাতীয় শ্রমিক জোট-বাংলাদেশ–এর আন্তর্জাতিক সম্পাদক মনিরুল কবির মিলন, জাতীয় নির্মাণ শ্রমিক জোটের সাধারণ সম্পাদক পারুল মজুমদার, গার্মেন্টস শ্রমিক জোটের সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সালাম, পুস্তক বাঁধাই শ্রমিক জোটের সভাপতি মনির হোসেন, বাংলাদেশ পরিবহন হকার্স জোটের সভাপতি মোহাম্মদ আলী, শ্রমিক নেতা শেখ শাহনাজ, শিরিন সিকদার প্রমুখ। শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন কর্মজীবী নারীর নির্বাহী পরিচালক সানজিদা সুলতানা। Great)

Check Also

গাজীপুর সিটি নির্বাচন: লাঙলের প্রার্থীর ইশতেহার ঘোষণা

গাজীপুর সিটি করপোরেশনকে একটি পরিকল্পিত নগর হিসাবে গড়ে তোলার অঙ্গীকার করে ইশতেহার ঘোষণা করেছেন সিটি …