বিদেশি দুর্নীতিবাজ সরকারি কর্মকর্তাদের কালো তালিকাভুক্ত করবে ইইউ, গণমাধ্যমের তথ্যও বিবেচ্য

IPL ের সকল খেলা  লাইভ দেখু'ন এই লিংকে  rtnbd.net/live

কর্মকর্তাদের ঘুষ কেলেঙ্কারির কয়েক মাস পর ইউরোপীয় পার্লামেন্ট নড়েচড়ে বসেছে। ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ) বিশ্বব্যাপী দুর্নীতির দায়ে অভিযুক্ত ইইউ–এর বাইরের দেশের ব্যক্তিদের ‘কালো তালিকাভুক্ত’ করার পরিকল্পনাসহ দুর্নীতি দমনের লক্ষ্যে কিছু প্রস্তাব উত্থাপন করেছে। ইউরোপিয়ান কমিশনের ভাইস প্রেসিডেন্ট ভেরা জৌরোভা বলেছেন, ‘কয়েক বছর ধরে আমি লক্ষ্য করছি, কেন মানুষ গণতন্ত্রের ওপর আস্থা হারাচ্ছে। এর পেছনে দুটি কারণ রয়েছে—ক্ষমতার অপব্যবহার এবং দুর্নীতি।’ ইইউয়ের প্রস্তাবগুলোর মধ্য রয়েছে, ইউরোপীয় ইউনিয়নের ২৭টি সদস্য রাষ্ট্রকে দুর্নীতির মূল কারণ, ঘুষ দিয়ে কাজ বাগানো, অফিশিয়াল পদের অপব্যবহার, ন্যায়বিচারে বাধা এবং অবৈধ সম্পদ অর্জন সম্পর্কে অবহিত করা।  ২০২২ সালের এক সমীক্ষায় দেখা গেছে, দুর্নীতি ইইউ নাগরিকদের জন্য একটি গুরুতর উদ্বেগের বিষয়। যেখানে ৬৮ শতাংশ মানুষ মনে করেন, তাঁদের দেশে এখনো দুর্নীতির ব্যাপক বিস্তার রয়েছে। ইইউ–এর লক্ষ্য হলো, অনিয়ম দুর্নীতি প্রতিরোধ নতুন ব্যবস্থার মধ্যে ন্যূনতম এবং সর্বোচ্চ শাস্তির সঙ্গে কারাগারের শর্তগুলোর সামঞ্জস্য বিধান করা। পাশাপাশি সদস্য রাষ্ট্রগুলোর পুলিশ বাহিনীর মধ্যে আন্তর্জাতিক সহযোগিতা সহজ করা। এ ছাড়া যেসব ব্যক্তি এবং সংস্থা ‘গুরুতর দুর্নীতি’ করেছে তাদের সম্পদ বাজেয়াপ্ত এবং ইউরোপীয় ইউনিয়নে নিষিদ্ধ করা হবে। এসব পরিকল্পনা বাস্তবায়নে অবশ্য ইইউ–এর ২৭ সদস্য এবং ইউরোপীয় পার্লামেন্টের অনুমোদন লাগবে। অন্য দেশের দুর্নীতিবাজদের ইইউ–এর কালো তালিকাভুক্ত করার এ প্রস্তাব যুক্তরাষ্ট্রের ম্যাগনিটস্কি আইনের অনুরূপ। এ আইনের অধীনে ওয়াশিংটন দুর্নীতি বা মানবাধিকার লঙ্ঘনে জড়িত বিদেশি সরকারি কর্মকর্তাদের শাস্তি দিয়ে থাকে। এই আইনটির নামকরণ করা হয়েছে রুশ আইনজীবী সের্গেই ম্যাগনিটস্কির নামে। তিনি ২০০৯ সালে রাশিয়ার কারাগারে বিনা বিচারে বন্দী অবস্থায় মারা যান। ইউরোপীয় ইউনিয়নের পররাষ্ট্র নীতির প্রধান জোসেপ বোরেল বলেন, ‘আমরা একটি স্পষ্ট বার্তা পাঠাচ্ছি। যারা দুর্নীতির সঙ্গে জড়িত তারা ইউরোপীয় ইউনিয়নে ব্যবসা করার জন্য উন্মুক্ত নন। কেননা দুর্নীতি শান্তির জন্য হুমকি।’ কমিশনের সংজ্ঞায় অন্তর্ভুক্ত দুর্নীতির গুরুতর কাজগুলো হলো—একজন সরকারি কর্মকর্তার ঘুষ গ্রহণ এবং সরকারি তহবিল আত্মসাৎ করা। বোরেল আরও বলেন, ‘দুর্নীতি শান্তি ও আন্তর্জাতিক নিরাপত্তাকে হুমকির মুখে ফেলতে পারে। সন্ত্রাসবাদ, সংগঠিত অপরাধ এবং অন্যান্য অপরাধ করার সুযোগ তৈরি করে। তাই আমাদের পরিধি বাড়াতে হবে এবং বিশ্বব্যাপী দুর্নীতি মোকাবিলা করতে হবে।’ কমিশনের ভাইস প্রেসিডেন্ট জৌরোভা বলেন, প্রস্তাবগুলো ইউরোপীয় ইউনিয়নের অন্যান্য নিষেধাজ্ঞার মতোই। ইউক্রেন আক্রমণের সঙ্গে যুক্ত রুশ নাগরিকদের বিরুদ্ধে যেমন ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে এটি তেমনই। ইইউ অবশ্য ২০২০ সালের শেষ নাগাদ থেকে বিশ্বজুড়ে ‘মানবাধিকারের গুরুতর লঙ্ঘনের’ জন্য দায়ী ব্যক্তিদের নিষেধাজ্ঞা দিয়ে আসছে। নতুন প্রস্তাব অনুযায়ী, ইউরোপীয় ইউনিয়নের পররাষ্ট্র নীতি প্রধান আনুষ্ঠানিকভাবে কারও নাম প্রস্তাব করলে তাকে কালো তালিকা ভুক্ত করা হবে। তবে এর জন্য সদস্য রাষ্ট্রগুলোর সর্বসম্মতি লাগবে। কোনো ব্যক্তিকে তালিকাভুক্ত করার ক্ষেত্রে ইউরোপীয় ইউনিয়ন কোনো মুক্ত উৎস যেমন গণমাধ্যম বা সদস্য রাষ্ট্রের গোয়েন্দা বা আইন প্রয়োগকারী সংস্থাগুলো দ্বারা সংগৃহীত তথ্যের সমর্থন যাচাই করবে। যার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া তিনি এই সিদ্ধান্তকে চ্যালেঞ্জ করতে ইউরোপীয় বিচার আদালতে যেতে পারবেন। উল্লেখ্য, তথাকথিত ‘কাতারগেট’ ব্রাসেলসজুড়ে কাঁপুনি ধরিয়ে দিয়েছে। ইউরোপীয় পার্লামেন্টে দুর্নীতির কেলেঙ্কারি ক্রমেই আরও বহু বিস্তৃত ও জটিল আকার ধারণ করছে। সংবাদমাধ্যমে একের পর এক বোমা ফাটানো প্রতিবেদন, রুদ্ধদ্বার শুনানি, ফাঁস হওয়া স্বীকারোক্তি, সমঝোতার আবেদন এবং অভিযুক্তদের আইনজীবীর বিস্ফোরক বিবৃতি—বারবার ঘটনার বাঁক বদল চলছে। কেলেঙ্কারির কেন্দ্রে রয়েছে একটি নগদ লেনদেন। ইউরোপীয় পার্লামেন্টের সিদ্ধান্ত প্রভাবিত করতে কাতার এবং মরক্কোর কাছ থেকে মোটা অঙ্কের অর্থ ও দামি উপহার গ্রহণ করেছেন কয়েকজন পার্লামেন্ট সদস্য। এই তথ্য ফাঁসের ঘটনাকেই বলা হচ্ছে ‘কাতারগেট’। কাতার এবং মরক্কো উভয়ই দাবি করেছে, তারা বেআইনি কোনো কাজ করেনি। গত বছরের ডিসেম্বরের মাঝামাঝিতে পার্লামেন্ট কমিটির তদন্ত প্রকাশ্যে আসার পর থেকে বেলজিয়াম কর্তৃপক্ষ একটি অপরাধমূলক সংগঠন, অর্থ পাচার এবং দুর্নীতিতে জড়িত পাঁচজনকে গ্রেপ্তার করে। পরে তাঁরা ছাড়া পেলেও বিচারপ্রক্রিয়া চলছে। আরেকজন ইতালি থেকে বেলজিয়ামে প্রত্যর্পণের অপেক্ষায় রয়েছেন। awesome)

Check Also

গাজীপুর সিটি নির্বাচন: লাঙলের প্রার্থীর ইশতেহার ঘোষণা

গাজীপুর সিটি করপোরেশনকে একটি পরিকল্পিত নগর হিসাবে গড়ে তোলার অঙ্গীকার করে ইশতেহার ঘোষণা করেছেন সিটি …