বাউফলে উপজেলা চেয়ারম্যানকে হ'ত্যাচেষ্টা মামলায় চারজন কারাগারে

IPL ের সকল খেলা  লাইভ দেখু'ন এই লিংকে  rtnbd.net/live

পটুয়াখালীর বাউফল উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল মোতালেব হাওলাদারকে হ'ত্যাচেষ্টা মামলায় উপজেলার চন্দ্রদ্বীপ ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যানসহ চারজনকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন আদালত। আজ বুধবার দুপুরে বিচারক মোহাম্মদ জামাল হোসেন তাঁদের জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী সহকারী সরকারি কৌঁসুলি (এপিপি) মো. বশিরুল আলম। তিনি বলেন, হ'ত্যাচেষ্টা মামলায় ১০ আসামি পটুয়াখালীর চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির হয়ে জামিনের আবেদন করেন। এ সময় আদালত চারজনের জামিন নামঞ্জুর ও ছয়জনের জামিন মঞ্জুরের আদেশ দেন।’ কারাগারে যাওয়া আসামিরা হলেন বাউফলের চন্দ্রদ্বীপ ইউপির চেয়ারম্যান এনামুল হক আলকাস মোল্লা (৫০), শফি হাওলাদার (৪৯), মোহন ভূঁইয়া (৪০) ও লিমন (৩৪)। এর আগে আসামিরা গত ৪ এপ্রিল উচ্চ আদালত থেকে চার সপ্তাহের জন্য আগাম জামিন নেন। জামিনের সময় শেষে আজ আদালতে হাজির হয়ে স্থায়ী জামিনের আবেদন করলে আদালত এই আদেশ দেন। জানা গেছে, গত ১৭ মার্চ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মদিন উদ্‌যাপনকে ঘিরে স্থানীয় এমপি আ স ম ফিরোজ এবং উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল মোতালেব হাওলাদার গ্রুপের লোকজনের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। এ সময় আব্দুল মোতালেবকে কুপিয়ে জখম করা হয়। এই ঘটনায় উপজেলার বগা ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মো. দিদারুল ইসলাম বাদী হয়ে বাউফল থানায় একটি হ'ত্যাচেষ্টা মামলা দায়ের করেন। এই মামলায় আসামি করা হয় স্থানীয় এমপি আ স ম ফিরোজের ভাতিজা কালাইয়া ইউপির চেয়ারম্যান ফয়সাল আহমেদ মনির হোসেন মোল্লা ও চন্দ্রদ্বীপ ইউপির চেয়ারম্যান এনামুল হক আলকাস মোল্লাসহ ১৬ জনের নামসহ অজ্ঞাতনামা ২৫-৩০ জনকে। তাঁদের মধ্যে দুই আসামি মো. জাফর (৩৭) ও মো. শামীমকে (৩২) পুলিশ গ্রেপ্তার করলেও পরে তাঁরা আদালত থেকে জামিন নেন। আসামিপক্ষে মামলা পরিচালনা করেন আবুল কাসেম এবং রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন এপিপি মো. বশিরুল আলম। awesome)

Check Also

গাজীপুর সিটি নির্বাচন: লাঙলের প্রার্থীর ইশতেহার ঘোষণা

গাজীপুর সিটি করপোরেশনকে একটি পরিকল্পিত নগর হিসাবে গড়ে তোলার অঙ্গীকার করে ইশতেহার ঘোষণা করেছেন সিটি …