থানায় হামলা চালিয়ে পুলিশ হত্যার ৩৪ বছর পর পলাতক আসামি গ্রেপ্তার

থানায় হামলা চালিয়ে পুলিশ হত্যার ৩৪ বছর পর পলাতক আসামি গ্রেপ্তার

১৯৮৭ সালের ২৪ ফেব্রুয়ারি এক চরমপন্থীকে ছিনিয়ে নিতে নাটোরের গুরুদাসপুর থানায় হামলা চালিয়ে অস্ত্র লুট ও এক কনস্টেবলকে হত্যা করেন তার সহযোগীরা। ওই মামলায় যাবজ্জীবন দণ্ডপ্রাপ্ত পলাতক এক আসামিকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব। প্রায় ৩৪ বছর পর সাইফুল ইসলাম নামে ওই আসামিকে শুক্রবার রাতে গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে নারায়ণগঞ্জের রুপগঞ্জে অভিযান চালিয়ে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

গুরুদাসপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. আব্দুল মতিন সমকালকে বলেন, ১৯৮৭ সালের ২৪ ফেব্রুয়ারি চরমপন্থীদের আক্রমণের শিকার হয় গুরুদাসপুর থানা। ওই সময় লুটপাট চালানো হয় থানায়। লুটপাট চালিয়ে কনস্টেবল হাবিবুর রহমানকে হত্যা করা হয়। ওই ঘটনায় ৪৯ জনকে আসামি করে মামলা করা হয়। থানায় মজুত থাকা অস্ত্র লুট ও হত্যা মামলার যাবজ্জীবন কারাদণ্ডপ্রাপ্ত আসামি সাইফুল ইসলামকে শুক্রবার রাতে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব। গত ৩৪ বছর যাবত সাজাপ্রাপ্ত ওই চরমপন্থী সদস্য সাইফুল ইসলাম পলাতক ছিলেন। তার গ্রামের বাড়ি পাবনার চাটমোহর এলাকায়।

ওসি বলেন, গুরুদাসপুর থানায় ওই ঘটনায় ৪৯ জনকে আসামি করে মামলা করা হয়। মামলার পর ২০ জনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। এর পর ১৯৯০ সালে চার্জশিট দেওয়া হয়। মামলাটির রায় ঘোষণা করা হলে আদালত সাইফুলকে যাবজ্জীবন সাজা দেন। এরপর জামিন নিয়ে ৩৪ বছর যাবত পলাতক ছিলেন তিনি।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.

© All rights reserved © 2017 RTNBD.net