নানাকে খুন করার দৃশ্য দেখে ফেলায় নাতনিকেও হত্যা

নানাকে খুন করার দৃশ্য দেখে ফেলায় নাতনিকেও হত্যা

রংপুরের গঙ্গাচড়া উপজেলায় নানাকে খুন করার ঘটনা দেখে ফেলায় ১২ বছরের এক শিশুকে হত্যা করা হয়েছে। হত্যাকাণ্ডের প্রায় দেড় বছর পর দুই নারীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগের (সিআইডি) কর্মকর্তা।

সোমবার দুপুরে নগরীর কেরানিপাড়ায় এক সংবাদ সম্মেলনে রংপুর সিআইডির বিশেষ পুলিশ সুপার আতাউর রহমান জানান, আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে ২০২১ সালের ৬ এপ্রিল রংপুরের গঙ্গাচড়ার হোহালী ইউনিয়নের আনন্দবাজার এলাকায় সাবেক ইউপি সদস্য সাইফুল ইসলামের নেতৃত্বে একদল সন্ত্রাসী আজিজুল ইসলাম মেম্বারকে হত্যা করে। ওই হত্যার ঘটনাটি ভিন্ন খাতে প্রবাহিত করার জন্য সাইফুল তার চাচাতো ভাই রেয়াজুল ইসলামকে হত্যা করে।

তিনি বলেন, রেয়াজুল ইসলামকে হত্যার দৃশ্য দেখে ফেলে তার ১২ বছরের নাতনি মোনালিসা। নানাকে হত্যার কথা তার নানিকে জানালে আসামিরা মোনালিসাকে হত্যার জন্য মরিয়া হয়ে উঠে। মেয়ের জীবন বাঁচাতে দুই মাস আত্মগোপনে থাকে মা ও মেয়ে। এরপর আসামিরা উপবৃত্তি দেওয়ার কথা বলে কৌশলে মা-মেয়েকে ডেকে নিয়ে আসে। কয়েক দিন চেষ্টার পর আসামিরা শিশু মোনালিসাকে শ্বাসরোধ করে হত্যার পর তার লাশ ঘরের মধ্যে ঝুলিয়ে রাখে।

আসামিরা প্রভাবশালী হওয়ায় থানায় মামলাও করতে পারেনি শিশুটির পরিবার। হত্যাকাণ্ডের ১৫ মাস পর এ ঘটনায় সিআইডি চলতি বছরের ৪ আগস্ট গঙ্গাচড়া থানায় একটি মামলা করে। মামলা হলে সিআডি ঘটনার সঙ্গে জড়িত দুই নারী মোতাহারা বেগম ও ময়না বেগমকে গ্রেফতার করে।

তাদের বাড়ি গঙ্গাচড়া উপজেলার চড় বাগডহড়া গ্রামে। সিআইডির কাছে তারা হত্যার সঙ্গে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছেন। তাদের গ্রেফতারের পরই হত্যার রহস্য উন্মোচন করে সিআইডি।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.

© All rights reserved © 2017 RTNBD.net