Breaking News

আরেকটু দেরি হলেই কেলেঙ্কারি হয়ে যেত: মাহি

‘আমরা আর একসঙ্গে নেই’—চিত্রনায়িকা মাহিয়া মাহির ফেসবুক পোস্ট! ‍মুহূর্তেই অন্তর্জালে ভাইরাল। রোববার (৯ অক্টোবর) রাত ৯টার দিকে তার নিজের ফেসবুক আইডির পোস্ট ছিল এটি। রহস্য দানা বাঁধে, আবারও কি ঘর পুড়ছে ‘পোড়ামন’ নায়িকার?
রহস্যের জট খুলতে তৎক্ষণাৎ গণমাধ্যমকর্মীরা মাহির সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করেন। কারোরই ফোন ধরছিলেন না নায়িকা। এবার ঘর ভাঙার গুঞ্জনটি আরও জোরালো হয়। ভক্ত-অনুসারীদের মধ্যে সংশয় দেখা দেয়, মাহি-রকিবের সংসার তবে টিকছে না? এর ঠিক আধা ঘণ্টার মাথায় স্ট্যাটাসটি মুছে ফেলা হয়। এরপর মাহির একই আইডিতে লেখা হয়, ‘কিছুক্ষণ আগে আমি ছাড়াও আমার প্রোফাইল কে যেন লগইন করেছিল। জানি না কাকে কাকে টেক্সটও পাঠিয়েছে। কী ভয়ানক!’

এ ব্যাপারে সোমবার (১০ অক্টোবর) দুপুরে মাহি তার অবস্থান পরিষ্কার করেন, ‘ফেসবুক এমন একটি জিনিস, যেকোনো সময় হ্যাক হতে পারে বা পাসওয়ার্ড জেনে যে কেউই লগইন করতে পারে। আমার ক্ষেত্রে তা-ই হয়েছে। তবে আমি কিছু সময়ের মধ্যে তা টের পেয়ে স্ট্যাটাসটি ডিলিট করেছি। আরেকটু দেরি হলে কেলেঙ্কারি হয়ে যেত। সবার ভুল ভাঙতে নতুন একটি স্ট্যাটাসও দিয়েছি। সঙ্গে সঙ্গে আমার আইডির পাসওয়ার্ড পরিবর্তন করেছি। বলতে পারেন, এটি একটি দুর্ঘটনা মাত্র।’

ঘটনার ব্যাপারে মাহি বলেন, ‘যে সময় ঘটনাটি ঘটে, সে সময় আমি ও রকিবের বোন দুজন থেরাপি নিতে হাসপাতালে ছিলাম। ওদিকে রকিব তার রাজনৈতিক কাজে বাইরে ছিল। কাজ শেষ করে ফোন হাতে নিয়ে দেখি, অসংখ্য মানুষের মিসডকল। তার মধ্যে রকিবেরও অনেক মিসডকল। আমি ভাবলাম কী না কী হয়ে গেছে। রকিবকে ফিরতি ফোন দিতেই ঘটনাটি জানতে পারি। সঙ্গে সঙ্গে ফেসবুকে ঢুকে স্ট্যাটাসটি ডিলিট করি। এরপর একজনকে দিয়ে আইডির পাসওয়ার্ড পরিবর্তন করি।’

যে ছেলেটি মাহির ফেসবুক পেজ ও আইডি দেখভাল করতেন, তাকেই সন্দেহ করছেন মাহি। মাহি বলেন, ‘এর আগে একটি ছেলে আমার পেজ ও আইডি দেখতেন। বছরখানেক আগে ছেলেটির কাছ থেকে পেজ ও আইডি নিয়ে নিই। তবে আমার কাছে মনে হয়, ছেলেটির কাছে আমার আইডি লগইন ছিল। এ ঘটনার পর আমি ও রকিব দুজনই ছেলেটিকে ফোনে ধরার চেষ্টা করেছি। কিন্তু তিনি ফোন ধরেননি।’
উল্লেখ্য, শুক্রবার (৭ অক্টোবর) মাহিয়া মাহি অভিনীত ‘যাও পাখি বলো তারে’ সিনেমাটি দেশের ২১টি প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পেয়েছে। মোস্তাফিজুর রহমান পরিচালিত এই সিনেমাতে আরও অভিনয় করেছেন আদর আজাদ, শিপন মিত্র, মামুন অপু প্রমুখ।

Check Also

জিয়াউর রহমান, খালেদা জিয়া এবং তারেক রহমান তারা সবাই খুনি : শেখ হাসিনা

আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, জিয়াউর রহমান, খালেদা জিয়া এবং তারেক রহমান—তারা …

Leave a Reply

Your email address will not be published.